২০ হাজার কোটি টাকা কম রাজস্ব আদায় হবে: সংসদে প্রধানমন্ত্রী

৭১বিডি২৪ডটকম । নিউজ ডেস্ক:


Harina-in-Parliament


বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী ও সংসদ নেতা শেখ হাসিনা বলেছেন, ভ্যাট আইন স্থগিত রাখায় চলতি অর্থবছরে ২০ হাজার কোটি টাকার রাজস্ব আদায় কম হবে। এ জন্য হয় ব্যাংক থেকে ঋণ নিতে হবে, না হলে উন্নয়ন বাজেট কাটছাঁট করতে হবে। তারপরও জনগণের প্রতিনিধিদের মতামতের প্রতি সম্মান দেখাতে ভ্যাট আইন স্থগিত রাখা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার জাতীয় সংসদের বাজেট অধিবেশনের সমাপনী বক্তব্যে শেখ হাসিনা এসব কথা বলেন।

গত ৩০ মে শুরু হওয়া এ অধিবেশনে ১ জুন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত ২০১৭-১৮ অর্থবছরের বাজেট প্রস্তাব করেন। অর্থমন্ত্রীর প্রস্তাবিত বাজেটের ওপর সরকারি ও বিরোধী দলসহ অন্যান্য দলের ২০৭ জন সংসদ সদস্য ৫৬ ঘণ্টা ১৪ মিনিট আলোচনা শেষে গত ২৯ জুন ৪ লাখ ৪০ হাজার ২৬৬ কোটি টাকার বাজেট পাস হয়।

বৃহস্পতিবার স্পিকার শিরীন শারমিন চৌধুরী অধিবেশনের সমাপ্তি-সংক্রান্ত রাষ্ট্রপতির আদেশ পাঠ করার মধ্য দিয়ে অধিবেশনের ইতি টানেন।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, বিরোধী দলের চেয়েও এবার সরকারি দলের সদস্যরাই সবচেয়ে বেশি সরকারের, বাজেটের ও অর্থমন্ত্রীর সমালোচনা করেছেন। নিজেদের মতামত প্রকাশে কেউ তাদেরকে বাধা দেয়নি। সংবিধানে ৭০ অনুচ্ছেদ থাকলেও সংসদ সদস্যদের যে মত প্রকাশের স্বাধীনতা রয়েছে তা এখন প্রমাণিত সত্য। অথচ অনেকে এই ৭০ অনুচ্ছেদ নিয়ে ভুল ব্যাখ্যা করেন।

বাজেট প্রসঙ্গ উল্লেখ করে তিনি বলেন, বাজেট সম্পর্কে সরকারি দলের সদস্যরা সবচেয়ে বেশি সমালোচনা করেছেন, সরকারের সমালোচনা করেছেন। মত প্রকাশের স্বাধীনতা আছে এটা প্রমাণিত সত্য।

শেখ হাসিনা বলেন, আমাদের সরকার মোট ১৪টি বাজেট দিয়েছে। এবারের মতো এত বড় বাজেট এর আগে কখনও দেয়া হয়নি। ২০০৫-০৬ সালে বাজেটের পরিমাণ ছিল ৬১ হাজার কোটি ৪ লাখ ২৬৬ কোটি টাকা। এবারের বাজেটের এডিপিই হলো ১ লাখ ৫৩ হাজার।

প্রধানমন্ত্রী উল্লেখ করেন, ২০১৬-১৭ অর্থ বছরে বাজেটে যে এডিপি দিয়েছিলাম তা কাটছাঁট করিনি। এডিপি ছিল ১ লাখ ১০ হাজার কোটি টাকা। এরমধ্যে ১ লাখ ৭ হাজার কোটি টাকাই ব্যয় করতে সক্ষম হয়েছি, বাস্তবায়ন করতে সক্ষম হয়েছি।

তিনি বলেন, বড়বড় পত্রিকা বড় হেডলাইন করে। ১ লাখ কোটি টাকার উপরে উন্নয়ন প্রকল্প বাস্তবায়ন কোনো সরকার করতে পারেনি। আওয়ামী লীগ করেছে। একটা ইতিহাস সৃষ্টি করেছি। এবারও ১ লাখ ৫৩ হাজার ৩৩১ কোটি টাকা এডিপি নির্ধারণ করা হয়েছে। এটা পূরণ করতে পারব। সেই বিশ্বাস আছে। তিনি বলেন, মন্ত্রী-এমপিদের অনুরোধ করব নিজ নিজ এলাকায় যেসব প্রকল্প আছে সেগুলোতে যে বরাদ্দ দেয়া হয়েছে সেগুলো যেন যথেচ্ছভাবে খরচ না হয়।

সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে তার সরকারের কঠোর অবস্থান পুনর্ব্যক্ত করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, এদেশে জঙ্গি ও সন্ত্রাসীদের কোনো স্থান হবে না। বাংলাদেশ এগিয়ে যাচ্ছে, এগিয়ে যাবে। এই বাংলাদেশ হবে সোনার বাংলাদেশ। ২০২১ সালের মধ্যে ক্ষুধা ও দারিদ্র্যমুক্ত মধ্যম আয়ের এবং ২০৪১ সালের মধ্যে উন্নত সমৃদ্ধ দেশে পরিণত হবে।

বিরোধীদলীয় নেতা রওশন এরশাদের বক্তব্যের জের ধরে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, বৃষ্টি হলে রাজধানীর ধানমন্ডিতে পানি জমে যায়। পত্রিকায় লিখেছে ধানমন্ডি নদী। ধানমন্ডি একসময় ছিল ধানখেত। এখানে লেক ছিল, বিল ছিল। পান্থপথ রাস্তা ছিল খাল। এই খাল হয়ে বৃষ্টির পানি নিষ্কাশন হতো। এসব খাল বন্ধ করে বক্স কালভার্ট করা হয়েছে। ফলে আশপাশের পানি নামার সুযোগ নেই। পানিনিষ্কাশনের ভালো ব্যবস্থা করা হয়নি। সেগুনবাগিচা খাল, শান্তিনগর খালে বক্স কালভার্ট করা হয়েছে। মতিঝিল বন্ধ হয়ে গেছে। মতিঝিল এখন শুধু নামেই আছে। এখন কেউ জানবেও না এখানে ঝিল ছিল। ধোলাইখাল বন্ধ। প্রধানমন্ত্রী বলেন, প্রশ্ন হলো এসব বন্ধ করল কে? আওয়ামী লীগ বন্ধ করেনি। আইয়ুব খান শুরু করেছিলেন, এরপর জিয়াউর রহমান এসে পুকুর ভরাট করেন। পান্থপথ, সেগুনবাগিচা খাল—এগুলো এইচ এম এরশাদ ক্ষমতায় এসে বন্ধ করেছেন।

২০১৭-১৮ অর্থ বছরের বাজেট প্রসঙ্গে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, এবারের বাজেটের স্লোগান ‘উন্নয়নের মহাসড়কে বাংলাদেশ, সময় এখন আমাদের’। আজকের বাংলাদেশ সারা বিশ্বের কাছে রোল মডেল।

Recommended For You

About the Author: HumayrA

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *