হত-দরিদ্রদের মুখের খাবার ন্যায্য মূল্যের চাল কেরে নিচ্ছে সরকার দলীয় নাম ধারি কিছু অসাধু ডিলার!

৭১বিডি২৪ডটকম | করেসপন্ডেন্ট:


চর কাজল ও চর বিশ্বাসে ১০ টাকা কেজি চাল বিতরনে অনিয়ম


গলাচিপা (পটুয়াখালী) : গত বছর থেকে বর্তমান সরকার হতো দরিদ্র ও গরীব দের জন্য ১০টাকা দরে ন্যায্য মূল্যে ডিলাদের মাধ্যমে চাল বিতরন করছে। সরকারের এই সফল কার্যক্রমকে ব্যাহত করার জন্য কিছু কুচক্রি সরকার দলীয় নাম ধারী ডিলাররা উঠে পরে লেগেছে। স্থানী প্রতিনিধিদের পাঠানো তথ্যে জানা যায় প্রতি ডিলার ৪৬০জন হত-দরিদ্রের জন্য প্রতিবার পাচ্ছেন সারে ১৬ টন চাল।বর্তমান সরকার এ পর্যন্ত গরীবদেরকে দেয়ার জন্য প্রতি ডিলাদেরকে ৫বারে কমপক্ষে ৬০টন চাল দিয়েছেন। কিন্তু সরকারের এই সকল সুবিধা থেকে বঞ্চিত হচ্ছে পটুয়াখালীর গলাচিপা উপজেলার চরকাজল ইউনিয়নের সকল হত-দরিদ্র জনগন। উক্ত চরকাজল ইউনিয়নের ৭ ও ৮ নং ওয়ার্ডে সাধারন মানুষের অভিযোগ ৮নং ওয়ার্ডে ডিলার শাহীন পঞ্চায়েত ও ৭নং ওয়ার্ডে ডিলার ফিরোজ আহাম্মেদ এই পর্যন্ত প্রায় ২০হাজার কেজি চাল আত্মসাৎ করেছে। জনপ্রতি ৩০০ টাকায় ৩০ কেজি চাল দেবার কথা থাকলেও তারা ২২/২৫ কেজির উপরে কাউকেই চাল দিচ্ছেনা। স্থানীরা যানায় ২২/২৫ কেজি চাল দিয়ে তাদের কার্ডে ৩০ কোজ করে লিখে দেওয়া হয়। এব্যাপারে কেউ প্রতিবাদ করতে গেলে তার নামের কার্ড বাতিল করে দিবে বলে হুমকি দেয় ডিলার শাহীন পঞ্চায়েত। শাহীন পঞ্চায়েত চরকাজল ইউনিয়ন যুবলীগের হাইব্রিড সভাপতি হওয়ায় তাকে কেউ কিছু বলতে পারেনা। এ ব্যাপারে শাহীন পঞ্চায়েত ও ফিরোজ মাহামুদে কাছে যানতে গেলে সাংবাদিকদের দেখে চাল দেওয়া বন্ধো করে স্থান থেকে পালিয়ে যায়।

এ ব্যাপারে গলাচিপা উপজেলা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (অতিরিক্ত) মো: ইছরাইল হোসেন এর কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন তদন্ত করে ব্যাবস্থা গ্রহন করা হবে। চরকাজল ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মো: রুবেল মোল্লার কাছে যানতে চাইলে তিনি বলেন বর্তমান সরকার কার্ড প্রতি ৩০ কেজি চাল বরাদ্য দিয়েছে ১কেজি চালও কমদেওয়া যাবেনা। সর্বস্থরের জনগনের দাবী ডিলার শাহীন পঞ্চায়েত ও তার সহযোগি ডিলার দের অবিলম্বে ডিলারি লাইছেঞ্চ বাতিল করে তাদের এমন শাস্তী প্রদান করা হোক,যাতে ভবিষ্যতে আর কোন ডিলার সরকারে দেওয় গরীবদের ৩০ কেজি চাল চুরি করে অনত্রে বিক্রি করতে সাহস না পায়। স্থানীয় লোকজন আরও যানায় গত ৯ এপ্রিল শাহীন পঞ্চায়েত ও তার দল দেশীয় অস্ত্র-সস্ত্র নিয়ে স্থানীয় চরকাজলের সাংবাদিক নাজিম উদ্দিনের বাড়িতে অতর্কিত হামলা চালিয়ে কমপক্ষে ৫০ হাজার টাকার আসবাবপত্র ভাংচুর করে এবং অস্ত্রের মুখে সবাইকে জিম্মি করে নগদ প্রায় ৩লক্ষ টাকা নিয়ে যায়। ঘটনার পরপরই সাংবাদিক নাজিম বাদী হয়ে গলাচিপা থানায় একটি লিখিত অভিযোগ করলেও এখন পর্যন্ত পুলিশ শাহীন পঞ্চায়েত এর বিরুদ্ধে কোন প্রকার আইনগত ব্যবস্থা গ্রহন করেনি বলে যানাজায়। শত অপরাধ করলেও শাহীন পঞ্চায়েতের বিরুদ্ধে প্রশাসন যথাযথ ব্যবস্থা না নেওয়া ফলে দিনদিন আরো ভয়ংকর হয়ে উঠেছে বলে এলাকার শান্তিপ্রিয় মানুষের অভিযোগ।

Recommended For You

About the Author: HumayrA

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *