বুধবার, ২৬ জানুয়ারী ২০২২, ০৮:৩৪ অপরাহ্ন

স্ত্রীর মৃত্যুর কারন জানতে স্বামীকে আটক: পুলিশ হেফাজতে সেই স্বামীর আত্নহত্যা

স্টাফ রিপোর্টার ; / ৩৮ ভোট :
প্রকাশ : শনিবার, ৮ জানুয়ারী, ২০২২

লালমনিরহাটের হাতীবান্ধায় স্ত্রীর রহস্যজনক মৃত্যুর কারণ জানতে হিমাংশু রায় নামে এক স্বামীকে আটক করে পুলিশ। তাকে জিজ্ঞাসাবাদ শেষে একটি রুমে একা রাখলে সেই স্বামী আত্নহত্যা করেছে এমন দাবী পুলিশের।

শনিবার সকালে ময়না তদন্তের জন্য হিমাংশু র মরদেহ লালমনিরহাট সদর হাসপাতালে মৃগে প্রেরণ করা হয়েছে।

হাতীবান্ধার ইউএনও সামিউল আমিন ও হাতীবান্ধা হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার হিরনময় বম্মর্ণ সাগরও প্রাথমিক ভাবে ধারনা করেছেন আত্নহত্যায় হিমাংশু রায়ের মৃত্যু হয়েছে।

এর আগে শুক্রবার সকালে ওই উপজেলার ভেলাগুড়ি ইউনিয়নের পুর্ব কাদমা মালদাপাড়া থেকে রহস্যজনক মৃত্যুর শিকার ছবিতা রানী নামে এক নারীর মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।

এ সময় তার স্বামী হিমাংশু রায়কে মৃত্যুর কারণ জানতে আটক করে থানায় নিয়ে আসে। সন্ধ্যায় পুলিশ হেফাজতে তার মৃত্যু হয়।

হাতীবান্ধা থানার ওসি এরশাদুল আলম বলেন, ওই এলাকার বিশেশ্বর রায়ের পুত্র হিমাংশু রায়ের বাড়ীতে তার রহস্যজনক মৃত্যুর শিকার স্ত্রী ছবিতা রানী (৩০)’র মরদেহ দেখে স্থানীয়রা পুলিশে খবর দেয়।

পুলিশ লাশ উদ্ধারসহ মৃত্যুর কারণ জানতে ওই নারীর স্বামী হিমাংশু রায়কে আটক করে থানায় নিয়ে আসেন। তাকে জিজ্ঞাসাবাদ শেষে থানার একটি রুমে রাখা হয়। সেই রুমে হিমাংশু রায় আত্নহত্যার চেষ্টা করেন । টের পেয়ে তাকে উদ্ধার করে স্থানীয় হাসপাতালে নিয়ে গেলে হাসপাতালে কর্মরত চিকিৎসক তাকে মৃত বলে ঘোষনা করেন।

হাতীবান্ধা হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার হিরনময় বম্মর্ণ সাগর বলেন, হিমাংশু রায়কে হাসাপাতালে নিয়ে আসার আগে তার মৃত্যু হয়েছে। তবে প্রাথমিক ভাবে ধারনা করা হচ্ছে হিমাংশুর মৃত্যু হয়েছে আত্নহত্যা করে। তার গলায় দাগ পাওয়া গেছে।

রাত সাড়ে ৮ টার দিকে হাতীবান্ধা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সামিউল আমিন হাসপাতালে গিয়ে মরদেহ’র প্রাথমিক তদন্ত করেন। প্রায় দুই ঘন্টা তিনি তদন্ত শেষে জানান, আমরা প্রাখমিক ভাবে ধারনা করছি, আত্নহত্যার কারণেই পুলিশ হেফাজতে হিমাংশু রায়ের মৃত্যু হয়েছে।

লালমনিরহাটের সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার (বি-সার্কেল) তাপস সরকার বলেন, আত্নহত্যার কারণে হিমাংশু রায়ের মৃত্য হয়েছে। লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য মৃগে প্রেরণ করা হয়েছে। এ ঘটনায় পুলিশের দায়িত্ব পালনে অবহেলা ছিলো কি না তা তদন্ত করা হচ্ছে।

হাতীবান্ধা উপজেলা চেয়ারম্যান মশিউর রহমান মামুন বলেন, চিকিৎসক ও পুলিশের সাথে কথা বলে আমরা প্রাথমিক ভাবে ধরনা করছি আত্নহত্যায় হিমাংশু রায়ের মৃত্যু হয়েছে। তবুও বলছি ময়না তদন্ত প্রতিবেদন আসলে বিস্তারিত বলা যাবে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

আরো সংবাদ...