April 13, 2024, 12:24 pm
শিরোনাম :

শিশুকে হত্যার পর মাটিচাপা, সৎ মা আটক

লক্ষ্মীপুর সংবাদদাতা

লক্ষ্মীপুরের রামগঞ্জে ৪ বছরের এক শিশুকে হত্যার পর মাটিচাপা দেয়ার অভিযোগ উঠেছে সৎ মায়ের উপর। মামলায় আটক সৎ মা কোহিনুর বেগমকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠিয়েছে পুলিশ।

নিহত শিশুর বাবা মিরন হোসেন মঙ্গলবার সকালে রামগঞ্জ থানায় মামলা করেন। মামলায় সৎ মা কোহিনুর বেগমকে গ্রেপ্তার দেখিয়ে আদালতের মাধ্যমে দুপুরে কারাগারে পাঠানো হয়।

থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. এমদাদুল হক জানান, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে কোহিনুর বেগমকে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে হত্যার দায় স্বীকার করেছেন।

নিহত সাঈফ চাঁদপুরের হাজীগঞ্জ উপজেলার বড়কুল পূর্ব ইউনিয়নের দক্ষিণ রায়চর জিয়ানগর এলাকার হাবীবুল্লাহর ছেলে। সাঈফের মায়ের সঙ্গে বিচ্ছেদের পর কোহিনুরকে বিয়ে করেন মিরন।

ওসি আরও জানান, গত সপ্তাহে স্বামীর বাড়ি হাজীগঞ্জ থেকে শিশুকে নিয়ে লক্ষ্মীপুরের রামগঞ্জে বাবার বাড়িতে আসেন কোহিনুর। শনিবার বাবার বাড়ি থেকে স্বামীর বাড়িতে গিয়ে শিশুকে পাওয়া যাচ্ছে না বলে জানান তিনি। এ অবস্থায় সাইফকে খুঁজে বের করতে খবর দেয়া হয় চাঁদপুরের ডুবুরি দল ও ফায়ার সার্ভিসকে। তারা আশপাশের পুকুর ও ডোবা-নালায় অনেক খুঁজেও পায়নি তাকে। পরে মিরন শনিবার হাজীগঞ্জ থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেন। এক দিন পর রোববার বিকেলে পুলিশ কোহিনুরকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করে।

পুলিশের জিজ্ঞাসাবাদে কোহিনুর স্বীকার করেন, শিশু সাঈফকে শ্বাসরোধ করে হত্যার পর তিনি বাবার বাড়ির রান্নাঘরের মাটির নিচে পুঁতে রেখেছেন। তার এ তথ্য অনুযায়ী সোমবার বিকেলে মাটি খুড়ে পুলিশ সাঈফের অর্ধগলিত মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়।

আরও পড়ুন- খুশকি দূর করার সহজ ৪ উপায়


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


ফেসবুকে আমরা