মুলাদীতে বেইলি ব্রিজ ভেঙে যান চলাচল বন্ধ

বিভাগীয় প্রতিনিধি, বরিশাল :

বরিশালের মুলাদীতে বেইলি ব্রিজ ভেঙে যান (বাস-ট্রাক) চলাচল বন্ধ রয়েছে।

শনিবার সকালে উপজেলার কাজিরচর ইউনিয়নের প্যাদারহাট বন্দর সংলগ্ন ব্রীজটি চাল বোঝাই ট্রাক নিয়ে ভেঙে নীচে পড়ে যায়। তবে এ ঘটনায় কোন হতাহতের খবর নেই।

স্থানীয় সূত্রে জানাগেছে, দীর্ঘদিনের পূরাতন এই ব্রীজটি জোরাতালির ওপর দিয়েই যানবাহন পারাপারে ব্যবহৃত হচ্ছে।

শনিবার সকাল ৮ টার দিকে মুলাদীর দিকে আসা একটি ট্রাক ব্রিজটিতে উঠলে তা ভেঙে ট্রাক নিয়ে নীচে পড়ে যায়। এরপর থেকেই বরিশাল ও বাবুগঞ্জের সাথে মুলাদী ও হিজলার সরাসরি সড়ক যোগাযোগ ব্যবস্থা বন্ধ হয়ে যায়।

বিকল্প পথ দিয়ে মটরসাইকেল ও অটোরিক্সা চলাচল করলেও তা দিয়ে বাস-ট্রাক চলাচল সম্ভব হচ্ছে না। বর্তমানে ট্রাকে থাকা চাল সরানোর কাজ শুরু হয়েছে।

বিষয়টি নিশ্চিত করে মুলাদী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ আতাহার মিয়া বলেন, সকাল ৮ টার দিকে এ ঘটনার পর বরিশালের সাথে মুলাদী ও হিজলার সরাসরি সড়ক (বাস-ট্রাক) যোগোযোগ বন্ধ হয়ে যায়।

তিনি বলেন, তাৎক্ষনিক ঘটনাস্থলে সড়ক ও জনপথ বিভাগের কর্মকর্তারা আসেন। তাদের উপস্থিতিতে প্রথমে ট্রাকটি থেকে চাল সরানোর কাজ চলছে। এরপর ট্রাকটি উদ্ধার অভিযান শুরু হবে।

পরে সড়ক ও জনপথ বিভাগ ব্রীজ সংস্কারের কাজ শুরু করবে, যাতে প্রায় ২ সপ্তাহ সময় লাগবে বলে সড়ক ও জনপথ বিভাগের কর্মকর্তারা জানিয়েছেন।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আরো জানান, বর্তমানে স্থানীয় প্রশাসন জনসাধারনের সহায়তায় পাশের একটি এলজিইডি’র সড়ক সংস্কার করার কাজে হাত দেয়। যা দিয়ে এখন কোন মতে মটরসাইকেল ও অটোরিক্সা চলাচল করছে। ২ দিনের সংস্কার শেষ হলে হালকা যানবাহন এ সড়ক দিয়ে চলাচল করতে পারলেও বাস-ট্রাক চলাচলের কোন সম্ভাবনা নেই।

মুলাদীতে বেইলি ব্রিজ ভেঙে যান চলাচল বন্ধএদিকে ভাঙা ব্রীজটির পাশ থেকে স্থানীয় জনসাধারনের সহায়তায় একটি বাঁশের সাকো মানুষজন পাড়াপারের জন্য তৈরি করে দেয়া হয়েছে।

এ বিষয়ে স্থানীয় সংসদ সদস্য এ্যাড. শেখ মোঃ টিপু সুলতান বলেন, তার পক্ষ থেকে দ্রুতটি ব্রিজটি সংস্কার করে সড়ক যোগাযোগ চালু করে দেয়ার জন্য সড়ক ও জনপথ বিভাগকে বলা হয়েছে। তবে মীরগঞ্জ থেকে মুলাদী সদর উপজেলা পর্যন্ত যে কয়টি (৮/৯টি) বেইলি ব্রিজ রয়েছে তা কংক্রিটের ব্রিজ করার জন্য আমি সড়ক ও জনপথ বিভাগকে বহু আগে থেকে বলে আসছি।

এ বিষয়ে ডিও লেটারও মন্ত্রীর কাছে পাঠানো হয়েছে। তবে কোন কার্যক্রম এখনো চোখে পড়ছে না। তিনি আরো বলেন, কখনো বেইলির পাত ভেঙে যাওয়া কখনো ব্রিজ ভেঙে যাওয়াসহ নানান সমস্যা চলতে থাকায় আমার এলাকার জনগন প্রতিনিয়ত ভোগান্তির শিকার হচ্ছে।

অপরদিকে বরিশাল-বাবুগঞ্জ থেকে মুলাদী যেতে মীরগঞ্জ ঘাটে আর একটি ফেরি দেয়ার জন্য সড়ক ও জনপথ বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলীকে বলা হয়েছে, কিন্তু সেই এক ফেরিতেই এখনো যানবাহন পারপার করতে হচ্ছে। যারফলে ভোগান্তি কমছে না এ অঞ্চলের মানুষের। আমরাও স্বাভাবিক চলাচল করতে পারছি না।

এ বিষয়ে বরিশাল সড়ক ও জনপথ বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী মোঃ খালেদ শাহেদ বলেন, বেইলি ব্রীজটি মেরামতে ১৫/২০ দিন সময় লাগবে। এখন বিকল্প ব্যবস্থা খোজা হচ্ছে। পাশাপাশি ওখানেই একটি প্রকল্পের মাধ্যমে কনক্রিটের ব্রিজ নির্মানের চিন্তাভাবনা করা হয়েছে।

Recommended For You

About the Author: HumayrA

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *