মীর কাসেম আলীর মৃত্যুদণ্ড কার্যকরের প্রস্তুতি

জামায়াতে ইসলামীর নির্বাহী পরিষদ সদস্য মীর কাসেম আলীর মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করার সব প্রস্তুতি সম্পন্ন হয়েছে। গাজীপুরে অবস্থিত কাশিমপুর কারাগার-২ এ আজ শনিবার রাতে তার মৃত্যুদণ্ড কার্যকরের কথা।

মৃত্যুদণ্ড কার্যকরের আগে শনিবার বিকেলে মীর কাসেম আলীর সাথে পরিবারের সদস্যরা শেষ দেখা করেন।

এর আগে বেলা ৩টার দিকে মৃত্যুদণ্ড কার্যকরবিষয়ক সরকারের নির্বাহী আদেশ স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় থেকে কারাগারে পৌঁছায়।
গত শুক্রবার মীর কাসেম আলী কারা কর্তৃপক্ষকে জানিয়ে দেন তিনি রাষ্ট্রপতির কাছে মার্জনা চাইবেন না।

পারিবারিক সূত্র জানায়, আজ সকাল সাড়ে ১০টার দিকে কারাকর্তৃপক্ষ তাদের মীর কাসেম আলীর সাথে দেখা করার জন্য খবর দেয়। দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে মিরপুরের মনিপুর রহমত মঞ্জিল থেকে কাশিমপুর কারাগারের উদ্দেশে রওনা দেন পরিবারের সদস্যরা। মীর কাসেম আলীর স্ত্রী, মেয়ে, ছেলের বউ, নাতি, নাতনীসহ ৪৫ জন সদস্য পৌনে ৪টায় কারাগার চত্বরে প্রবেশ করেন।

মীর কাসেম আলীর পরিবারের একজন সদস্য জানান, শেষ সাক্ষাতের সময় তিনি স্বাভাবিক এবং শান্ত ছিলেন। তিনি দেশবাসীর জন্য দোয়া করেছেন এবং তাদের কাছে দোয়া চেয়েছেন।

কারাগার সূত্র জানায়, বেলা ১টা ৪০ মিনিটে অতিরিক্ত কারা মহাপরিদর্শক কর্নেল ইকবাল করিম কাশিমপুর কারাগারে প্রবেশ করেন। পরে সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা কারা অভ্যন্তরে প্রবেশ করেন। রাত ৯টার আগে প্রবেশ করে অ্যাম্বুলেন্স।

কারাগার এলাকায় সকাল থেকে কঠোর নিরাপত্তাব্যবস্থা গড়ে তোলা হয়। বিপুল র‌্যাব, পুলিশ ও গোয়েন্দা সদস্যদের নিয়োগ করা হয়েছে কারাগার চত্বরে।

মীর কাসেম আলীর আগে চলমান যুদ্ধাপরাধ মামলায় যে ক’জনের মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করা হয়েছে তার সবই হয়েছে নাজিম উদ্দিন রোডের ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারে।

Recommended For You

About the Author: HumayrA

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *