মির্জাগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স সাত বছরেও শুরু হয়নি ৫০ শয্যার কার্যক্রম

৭১বিডি২৪.কম | সোহাগ হোসেন;


mirjagong-hospital


মির্জাগঞ্জ (পটুয়াখালী): পটুয়াখালীর মির্জাগঞ্জ উপজেলার স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সটি ৫০ শয্যার উন্নীত করতে নতুন ভবন উদ্বোধন করা হয়েছে সাত বছর পূর্বে। বিভিন্ন সরঞ্জামও আনা হয়েছে। কিন্তু জনবলের অভাবে আজও ৫০ শয্যার কার্যক্রম শুরু করা যায়নি। ফলে রোগীরা এখানে এসে যথাযথ চিকিৎসা থেকে বঞ্চিত হচ্ছে। কর্তৃপক্ষ জানান, ৫০ শয্যা নয়, ৩১ শয্যার কার্যক্রম চালানোর মতো যথেষ্ট লোকবলও এ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেই। স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স সূত্রে জানা গেছে, স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সকে ৩১ থেকে ৫০ শয্যায় উন্নীত করার লক্ষ্যে প্রায় ৮কোটি টাকা ব্যয়ে ভবন নির্মান করা হয়েছে। যা ২০০৯ সালের ১১ই জুলাই ঘটা করে উদ্বোধন করা হয়। হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ বলছে, ৩১ শয্যার জনবল কাঠামো অনুযায়ী যে জনবল দরকার, এখানে তা- ও নেই। গাইনী, সার্জারী, মেডিসিন ও অ্যানেসথেসিয়া বিভাগের ৪জন বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক থাকার কথা। শুধু মেডিসিন বিশেষজ্ঞ আছেন। উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তাসহ বাকী ৩ জন চিকিৎসক নিয়মিত আসেন। আর ৫০ শয্যার জনবল কাঠামো অনুযায়ী এখানে ৯জন বিশেষজ্ঞসহ ২১ জন চিকিৎসক নিয়োগ করার কথা। অচেতনবিদ না থাকায় এ হাসপাতালে অস্ত্রোপচার করা হয়না। এদিকে হাসপাতালের ১টি এক্স-রে মেশিন ৭ বছর ধরে বিকল রয়েছে। মির্জাগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা: শ্যামল কৃষ্ণ হালদার বলেন, লোকবল না থাকায় এ হাসপাতালে ৫০ শয্যার কার্যক্রম চালু করা যায়নি। লোকবল সংকটের বিষয়ে পটুয়াখালীর সিভিল সার্জন ডাঃ মোঃ সেলিম মিয়া বলেন লোক সংকট দুর করে এ হাসপাতালে ৫০ শয্যার কার্যক্রম শুরুর ব্যাপারে উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে অবহিত করা হয়েছে।

Recommended For You

About the Author: HumayrA

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *