মঙ্গলবার, ৩১ জানুয়ারী ২০২৩, ০৬:৫৬ অপরাহ্ন

মাদ্রাসা ছাত্রী অপহরণের এক মাসেও উদ্ধার হয়নিঃ উল্টো দু’টি মামলা!

আমির হোসেন, ঝালকাঠি প্রতিনিধি / ১১১ ভোট :
প্রকাশ : শনিবার, ২৮ মে, ২০২২

ঝালকাঠির নলছিটিতে মাদ্রাসা ছাত্রী অপহরণের এক মাস অতিবাহিত হলেও ছাত্রী উদ্ধার কিংবা অপহরণকারী আটক হয়নি বরং অপহরণকারীর পিতা ও বড় ভাই বাদী হয়ে ছাত্রীটির পরিবারের বিরুদ্ধে পৃথক দু’টি মামলা দায়ের করেছে।p

জানা গেছে, নলছিটি উপজেলার মগর ইউনিয়নের ক্ষাওক্ষীর গ্রামের মঞ্জু খান রাজুর মেয়ে ক্ষাওক্ষীর মেহেদীয়া দাখিল মাদ্রাসার ৮ম শ্রেণির ছাত্রীকে গত ২১ এ‌প্রিল২২ রাত (আনুঃ) ১১ টার দিকে অপহরণ করে। ছাত্রীটি প্রকৃতির ডাকে সাড়া দিতে দরজা খুলে বাহির হওয়ার সাথে সাথেই পূর্ব থেকে ওঁতপেতে থাকা ষাইটপাকিয়া গ্রামের মোশারফের পুত্র মো: সফিক হাওলাদার ২/৩ জনকে সঙ্গে নিয়ে মেয়েটিকে অপহরণ করে নিয়ে যায়। এ ব্যাপারে মেয়েটির মা বাদী হয়ে গত ২৪ এ‌প্রিল২২ নলছিটি থানায় একটি অপহরণ মামলা দায়ের করেন। দীর্ঘ এক মাস অতিবাহিত হলেও ছাত্রীটি উদ্ধার কিংবা অপহরণকারী আটক হয়নি।

এদিকে অপহরণকারীর পিতা মো: মোশাররফ হোসেন বাদী হয়ে মেয়েটির মা ও আত্নীয়-স্বজনদের বিরুদ্ধে গত ২৮ এ‌প্রিল২২ ঝালকাঠি বিজ্ঞ সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আমলী আদালতে (নলছিটি) সি আর-১০১/২২ (নলছিটি), ধারা-৩৬৪ ও ৩৬৫ মামলা দায়ের করেন। আদালত তদন্তের জন্য ঝালকাঠি ডিবিকে নির্দেশ দিয়েছেন। এরপর অপহরণকারীর বড় ভাই মো: কামরুল ইসলাম বাদী হয়ে মেয়েটির আত্নীয়-স্বজনের বিরুদ্ধে গত ২৪ মে ২২ ঝালকাঠি বিজ্ঞ সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আদালতে সি/আর-১৪২/২২ (নল) চুরির মামলা দায়ের করেছেন। আদালত বরিশাল পিবিআইকে তদন্তের নির্দেশ দিয়েছেন।

এ ব্যাপারে অপহরণ মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা নলছিটি থানার এসআই মো: মিজানুর রহমান এ প্রতিবেদককে বলেন, তথ্য-প্রযুক্তি ব্যবহার করে ছাত্রীটিকে উদ্ধার ও অপহরণকারী যুবককে আটকের চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে।


আপনার মতামত লিখুন :
0 0 votes
Article Rating
Subscribe
Notify of
guest
0 Comments
Inline Feedbacks
View all comments
আরো সংবাদ...

নিউজ বিভাগ..