মাকে গলা কেটে হত্যা, ছেলের যাবজ্জীবন

:: ৭১বিডি২৪ডটকম :: চাঁদপুর ::



চাঁদপুরের ফরিদগঞ্জ উপজেলায় বিদেশে যাওয়ার জন্য টাকা না দেওয়ায় মাকে গলা কেটে হত্যার অপরাধে ছেলে মো. সফিকুর রহমানকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছে আদালত। একই সঙ্গে তাকে ১০ হাজার টাকা অর্থদণ্ড দেওয়া হয়েছে।

আজ মঙ্গলবার (২৭ নভেম্বর) দুপুর ২টায় চাঁদপুরের জেলা ও দায়রা জজ মো. জুলফিকার আলী খান এ দণ্ডাদেশের রায় প্রদান করেন।

হত্যার শিকার আলিমের নেছা (৬০) ফরিদগঞ্জ উপজেলার আলোনিয়া গ্রামের মো. সাহাজ উদ্দিনের স্ত্রী।  যাবজ্জীবন কারাদণ্ড প্রাপ্ত আসামী হলো, মো.সফিকুর রহমান (৩৫) তারই ছেলে।

মামলার বিবরণী থেকে জানা যায়, ২০১৫ সালের ৬ সেপ্টেম্বর ভোর ৪টার দিকে বিদেশ যাওয়ার জন্য টাকা না দেওয়ায় ছেলে সফিকুর রহমান ক্ষিপ্ত হয়ে তার মাকে দা দিয়ে গলায় কুপিয়ে জখম করে। কিছুক্ষণ পরে ওই কক্ষ থেকে শব্দ হলে সাহাজ উদ্দিন কক্ষে গিয়ে রক্তাক্ত অবস্থায় তার স্ত্রীকে দেখতে পান। তিনি চিৎকার করলে আশপাশের লোকজন এসে রক্ত বন্ধ করার চেষ্টা করলেও অতিরিক্ত রক্তক্ষরণে ঘটনাস্থলেই আলিমের নেছার মৃত্যু হয়। পরদিন সকালে পুলিশ খবর পেয়ে লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য চাঁদপুর মর্গে পাঠায়।

এ ঘটনায় ওইদিনই সাহাজ উদ্দিন বাদী হয়ে অজ্ঞাতনামা আসামি করে ফরিদগঞ্জ থানায় মামলা দায়ের করেন। মামলায় ফরিদগঞ্জ থানা পুলিশ তদন্ত করে সন্দেহভাজন হিসেবে নিহতের ছেলে সফিকুর রহমানকে আটক করে। পরে তাকে আদালতে পাঠানো হলে মাকে নিজেই হত্যা করেছে আদালতে এই মর্মে জবানবন্দি দেন তিনি।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা তাৎকালীন ফরিদগঞ্জ থানার উপপরিদর্শক (এসআই) হুমায়ুন কবির ২০১৫ সালের ৩ নভেম্বর আদালতে চার্জশিট দাখিল করেন।

Recommended For You

About the Author: HumayrA

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *