June 22, 2024, 9:03 am
শিরোনাম :
পাথরঘাটায় কনিষ্ঠ উপজেলা চেয়ারম্যান নির্বাচিত হলেন এনামুল হোসেইন “পুরাতন নয়, চাই নতুন নেতৃত্ব ! এনামুল আমাদের আশা- আকাঙ্ক্ষার প্রতীক”  গলাচিপায় সিপিপি স্বেচ্ছাসেবকদের দিনব্যাপী দক্ষতা উন্নয়ন কর্মশালা অনুষ্ঠিত গলাচিপায় দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা বিষয়ে দক্ষতা উন্নয়ন প্রশিক্ষণ পাথরঘাটায় উপজেলা নির্বাচনে এমপি কন্যার ক্ষমতা অপব্যবহারের প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন গলাচিপায় টমটম উল্টে জিহাদ নামের কিশোরের মৃত্যু, আহত ২ পাথরঘাটায় চেয়ারম্যান প্রার্থী এনামুলের ওপর অতর্কিত হামলা ঘূর্ণিঝড় রেমালে গলাচিপায় প্রায় ১৫০ কোটি টাকার ক্ষয়ক্ষতি রাঙ্গাবালীতে মোটরসাইকেল প্রতীকের নির্বাচনী পথসভা গলাচিপায় উপজেলা চেয়ারম্যান হিসেবে ওয়ানা মার্জিয়া নিতুর বিজয়

বরগুনা প্রায় অর্ধ শতাধিক অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ

তরিকুল ইসলাম রতন, স্টাফ রিপোর্টার

বরগুনা সদর উপজেলার হাসপাতাল সড়ক এলাকায় গণপূর্ত জমি থেকে প্রায় অর্ধ শতাধিক অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করা হয়েছে।

সোমবার (২৩ মে) সকালে বরগুনা সদর হাসপাতাল সংলগ্ন পুকুরপাড় এলাকায় গণপূর্ত অধিদফতর এ উচ্ছেদ অভিযান পরিচালনা করেন।

সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, বরগুনা সদর হাসপাতাল সংলগ্ন পুকুরপাড় এলাকায় গণপূর্তের জমিতে অর্ধশতাধিক স্থাপনায় ৭০-৮০ টি পরিবার থাকত। সকাল থেকে এই জমিতে উচ্ছেদ কার্যক্রম শুরু করে কর্তৃপক্ষ। আগে থেকে নোটিশ দেয়া থাকলেও এখনকার পরিবারগুলো নিজেদের ঘর ভেঙে নিতে পারেনি। তাই তাদের চোখের সামনেই চোখের সামনেই ভেঙে চুরমার হয়ে যায় তাদের এখানকার বাসিন্দাদের বশতঘর।

রিকশাচালক জামাল হোসেন বলেন, আমি গত ২৫-৩০ বছর যাবত এই ঘরে বসবাস করি, আমার কোথাও কোন জায়গা জমি নেই। আমি এখন কোথায় থকবো জানিনা। এই রাস্তার পাশে খোলা আকাশের নিচে থাকতে হবে। সরকার যেন আমাদের পুনর্বাসনের ব্যবস্থা করে সেই দাবি জানাই।

রোকেয়া বেগম নামে আরেকজন বলেন, ৪০ বছর আগে স্বামী মারা গেছে গাছ থেকে পড়ে। এরপর থেকে ঝাড়ুদারের কাজ করে সন্তান সন্ততি নিয়ে সংসার চালিয়েছি। সম্বল বলতে এই একটা ঘরই ছিলো। আজ তাও ভেঙে নিয়ে গেল। এখন কোথায় থাকব তা জানিনা।

আরেক ভুক্তভোগী খোকন মিয়া বলেন, আমাদের মধ্যে যারা মোটামুটি স্বচ্ছল তারা বাসা ভাড়া নিয়ে থাকতে পারবে। কিন্তু ছিন্নমুলরা কি করবে তা বুঝতে পারছিনা। অনেকের চুলায় আজ আগুন জ্বলবেনা। তাদের না খেয়ে থাকতে হবে।

এবিষয়ে বরগুনা জেলা প্রশাসক হাবিবুর রহমান বলেন, এখনকার পরিবারগুলো অবৈধভাবে সরকারি জমিতে বরবাস করে আসছিল। তবে এদের মধ্যে যদি প্রকৃত ভূমিহীন-গৃহহীন থেকে থাকে তাহলে তারা আবেদন করলে তাদের পুনর্বাসন করা হবে বলে তিনি জানান।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


ফেসবুকে আমরা