ব্রেকিং নিউজ
এনজিও শাখা ব্যবস্থাপকের হাতে নারীর শ্লীলতাহানি ও মারধোরের  অভিযোগ ! গলাচিপায় ক্লিনিক অ্যান্ড ডায়াগনস্টিক সেন্টার উদ্বোধন নারিকেল গাছ পরিষ্কার করতে গিয়ে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট স্কুলছাত্রের মৃত্যু গলাচিপায় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা’র ৭৬তম জন্মদিন উদযাপিত ঝালকাঠি জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান এ্যাড খান সাইফুল্লাহ পনির বামনায় আ,লীগের ত্রিবার্ষিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত নলছিটিতে এক বৃদ্ধের আত্মহত্যা স্ত্রীকে খুন করে খাটের নীচে কাঁথায় প্যাঁচিয়ে রাখলেন স্বামী তালতলীতে ইভটিজিংয়ের প্রতিবাদ করায় (৬) জনকে আসামী করে মামলা বামনায় দীর্ঘ ১১ বছর পর অনুষ্ঠিত হচ্ছে উপজেলা আ,লীগ সম্মেলন! চলছে নানা আয়োজন
বৃহস্পতিবার, ০৬ অক্টোবর ২০২২, ০২:৪৫ পূর্বাহ্ন

পুলিশ জনবান্ধন ও সেবক ! তারই দৃষ্টান্ত বরগুনার এসপি

তরিকুল ইসলাম রতন, স্টাফ রিপোর্টার / ১১৯ ভোট :
প্রকাশ : বৃহস্পতিবার, ২৩ জুন, ২০২২

গণতন্ত্রের উন্নয়ন ও অগ্রযাত্রায় পুলিশ সাহসিকতার ভূমিকা পালন করছে এবং পুলিশ জনবান্ধন ও সেবক তারই উদাহরণ বরগুনার পুলিশ সুপার মুহাম্মদ জাহাঙ্গীর মল্লিক (এসপি)।

বাংলাদেশ পুলিশ বাহিনীর প্রশংসা করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছিলেন, আজকের পুলিশ বাহিনী জনগণের বিশ্বাস এবং আস্থা অর্জন করতে সক্ষম হয়েছেন।

স্থানীয় এক প্রবীন রাজনিতীবিদ জানান, বরগুনার পুলিশ সুপার মুহাম্মদ জাহাঙ্গীর মল্লিক জেলার সকল মানুষের জান মালের নিরাপওা অর্জনে যেমন গুরুপ্তপূর্ন ভূমিকা পালন করছেন, তেমনি পুলিশের প্রতিও দায়িত্বশীল ভূমিকা পালনে সকল মানুষের কাছে তিনি প্রশংসা অর্জন করেছেন। তার অত্যন্ত সাহসিকতায় অন্যায়ের প্রতিরোধ গড়ে তুলে জনগণের জানমালের রক্ষা সহ বিভিন্ন সরকারি-বেসরকারি প্রতিষ্ঠানকে ধ্বংসের হাত থেকে তিনি রক্ষা করেছেন।

জেলা পুলিশ ও অফিস সুত্রের মাধ্যমে জানা যায়, জনবান্ধন ও মানধিক পুলিশ সুপার মুহাম্মদ জাহাঙ্গীর মল্লিক তিনি বরগুনায় অনেক উন্নায়নমূলক অবদান রেখেছেন – এর মধ্যে উল্লেখযোগ্য,-ডিএসবি গার্ড রুম (পুলিশ অফিস,বরগুনা), নারী, শিশু, বয়স্ক হেল্প ডেস্ক (পুলিশ অফিস, বরগুনা), পুলিশ অফিসসংলগ্ন স্টোর রুম (পুলিশ অফিস, বরগুনা), নব নির্মিত ওযুখানা (পুলিশ লাইন্স, বরগুনা), পুলিশ মেমোরিয়াল (পুলিশ লাইন্স,বরগুনা), নবনির্মিত বারবার শপ (পুলিশ লাইন্স, বরগুনা),নামাজের স্থান (পুলিশ অফিস, বরগুনা), ই- পাসপোর্ট ভোল্টেজ মেশিন (পুলিশ অফিস, বরগুনা),ই- পাসপোর্ট এসি (পুলিশ অফিস, বরগুনা) রিজার্ভ অফিস( পুলিশ লাইন্স, বরগুনা), নবনির্মিত ড্রিল শেডের মঞ্চ (পুলিশ লাইন্স, বরগুনা), পুলিশ লাইন্স মেসের লাকরির ঘর (পুলিশ লাইন্স, বরগুনা), ডাস্টবিন নির্মান (পুলিশ লাইন্স, বরগুনা), ট্রাফিক অফিস (পুলিশ অফিস, বরগুনা), নবনির্মিত টেনিস কোট (পুলিশ লাইন্স, বরগুনা), নবনির্মিত ব্যাটমিন্টন কোট (পুলিশ লাইন্স, বরগুনা ), পুলিশ অফিসে ক্যান্টিন নির্মান, এতিম তিন বোনের ঘর নির্মান (বামনা), অগ্নিকান্ডে ক্ষতিগ্রস্থ দোকান মালিকদের আর্থিক সহায়তা প্রদান (বরগুনা সদর), রাশিয়া – ইউক্রেন যুদ্ধে নিহত থার্ড ইন্জিনিয়ার হাদিসুর রহমান এর পরিবারকে আর্থিক সহায়তা প্রদান, পুলিশ হাসপাতাল আধুনিকীকরন (মেডিসিন সেলফ,০২ টি বড় ফ্রিজ ও ০৩ টি এসি স্থাপন),পুলিশ লাইন্স জামে মসজিদ দ্বিতীয় তলা করন ও এসি সংযোজন, পুরাতন গাড়ী মেরামত করে সচল করন, পুলিশ অফিসের সামনের রাস্তা মেরামত করন,পুলিশ অফিসের পিছনে ও সামনে ওয়াকওয়ে নির্মান, অবাধ ও নিরপেক্ষ ও সুষ্ঠুভাবে পৌর ও ইউপি নির্বাচন অনুষ্ঠান, করোনাকালীন মাক্স বিতরন, শীতবস্ত্র বিতরন, স্বচ্ছতার সাথে কনস্টেবল নিয়োগ – ২০২১/২২,মামলা তদন্ত বিষযক কর্মশালার আয়োজন, আইন শৃঙ্খলা সমুন্নত রাখার লক্ষ্যে অপরাধ সভার আয়োজন, বিট ও কমিউনিটি পুলিশিং সভা, সুরক্ষা বরগুনার সংস্কার করন, সংখ্যালগু রাখাইন মেয়েকে চাকরি প্রদান, পুলিশ অফিসের সামনের রাস্তা মেরামত করন, ও পুলিশ অফিসের সামনে ওয়াকওয়ে নির্মান ইত্যাদি। বিগত কোন পুলিশ সুপারের আমলে এরকম উন্নয়ন হয়নি বলে তারা জানান।

আরও পড়ুন- গরীব বলে বিয়ে ভেঙে যাওয়ায়, অভিমানে কলেজছাত্রীর আত্মহত্যা

বরগুনা জেলা আওয়ামী লীগের সিনি. যুগ্ন সাধারন সম্পাদক ও বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব মোতালেব হোসেন মৃধা বলেন, বাংলাদেশ যখন স্বাধীন করা হয় তখন এদেশের ৮২ ভাগ মানুষ দারিদ্র্যসীমার নিচে বাস করত। দেশ স্বাধীন হওয়ার পরে আমাদের রাস্তাঘাট, পুল, ব্রিজ সব ধ্বংসস্তূপে পরিণত হয়েছিল। ছিল না ব্যাংকে কোনো টাকা। গোলায় ছিল না ধান। তারপরেও রাতদিন পরিশ্রমের মাধ্যমে মাত্র সাড়ে তিন বছরে তিনি (বঙ্গবন্ধু) যখন বাংলাদেশকে স্বল্পোন্নত দেশে পরিণত করেন, তখনই ৭৫-এর ১৫ আগস্ট তাকে সপরিবারে হত্যা করা হয়েছিলো। সেখানে একজন পুলিশ কর্মকর্তাও শহীদ হয়েছিলেন। পুলিশ জনগণের সেবক ও জনবান্দব। এরই প্রমান আমাদের বরগুনা পুলিশ।

তিনি আরও জানান, আমি বরগুনায় অনেক পুলিশ সুপার দেখে আসছি কিন্তু বর্তমান পুলিশ সুপার মুহাম্মদ জাহাঙ্গীর মল্লিক তার উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত। আমি তার উজ্জ্বল কামনা করছি।

বরগুনা সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আলী আহম্মেদ বলেন , বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করে তারা শুধু তার পরিবারকে নিঃশেষ করেনি, তারা নিঃশেষ করেছে বাঙালি জাতির ভাগ্য ও বাংলাদেশের সম্ভাবনাকে। বঙ্গবন্ধু যেভাবে বাংলাদেশকে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছিলেন তারই ধারাবাহিকতায় আমরা বাংলাদেশের পুলিশ তার উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত।

তিনি আরও জানান, বরগুনার বর্তমান পুলিশ সুপার মুহাম্মদ জাহাঙ্গীর মল্লিক স্যার এক মানবিক পুলিশ অফিসার, তার নিতি ও আদর্শকে তিনি কখনও কলঙ্কিত করেননি। আমার জানা মতে তিনি একজন চৌকস পুলিশ অফিসার। আমি তার উজ্জ্বল ভবিষ্যৎ কামনা করছি।

এবিষয়ে বরগুনার পুলিশ সুপার মুহাম্মদ জাহাঙ্গীর মল্লিক তিনি জানান, বরগুনায় যোগদান করে আমি প্রথমেই সন্ত্রাস, মাদক ও জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্স ঘোষণা করেছি। পুলিশ বাহিনী অত্যন্ত সাহসিকতার সঙ্গে এগুলো মোকাবিলা করছে। বিশেষ করে জঙ্গিবাদ দমনে পুলিশের ভূমিকা অত্যন্ত প্রশংসনীয়। এটা শুধু আমাদের দেশে নয়, বিদেশেও পুলিশের ভূমিকা নিয়ে আলোচনা হচ্ছে।

তিনি আরও জানান, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বলেছিলেন, বাংলাদেশ স্বাধীনতার ইতিহাসের সঙ্গে পুলিশের শহীদ হওয়ার ঘটনা ইতিহাসে স্বর্ণাক্ষরে লেখা থাকবে। এরই ধারাবাহিকতা আমি বরগুনার সাধারন মানুষের জন্যে আমার স্বাধ্যমতো পাশে থেকে তাদের জানমাল নিরাপওাসহ কিছু উন্নয়ন ও অগ্রযাত্রার জন্যে চেষ্টা করে যাচ্ছি। আমাদের দেশ এগিয়ে যাচ্ছে- এগিয়ে যাবে এর জন্যে আমাদের পুলিশ বাহিনী উল্লেখযোগ্য ভূমিক্ পালন করে আসছে।

আরও পড়ুন- দলীয় শৃঙ্খলা ভঙ্গ ও চাঁদাবাজির অভিযোগে আওয়ামীলীগ নেতা বহিষ্কার


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

আরো সংবাদ...

নিউজ বিভাগ..