রবিবার, ২৯ জানুয়ারী ২০২৩, ১১:২১ পূর্বাহ্ন

পাল্টাপাল্টি মানববন্ধনে দুগ্রুপের সংঘর্ষ, পুলিশের লাঠিচার্জ, আহত- ৩৫

তরিকুল ইসলাম রতন, বরগুনা প্রতিনিধি / ৩৩৮ ভোট :
প্রকাশ : মঙ্গলবার, ১২ এপ্রিল, ২০২২

বরগুনার পাথরঘাটায় একইসময়ে দুগ্রুপের পাল্টাপাল্টি মানববন্ধনে সংঘর্ষের প্রায় অর্ধশতাধিক আহত হয়েছে। এ ঘটনায় পুলিশ লাঠিচার্জ করেছে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনতে পুলিশ লাঠিচার্জ করলে প্রায় ১৫ জন আহত হয়েছেন।

মঙ্গলবার বেলা ১১টার দিকে পাথরঘাটা পৌরশহরে এ ঘটনাটি ঘটেছে।

প্রথমে সকাল ১১ টার দিকে পাথরঘাটার চরদুয়ানি ইউনিয়নের চেয়ারম্যান এ্যাড.আবদুর রহমান জুয়েলের নেতৃত্বে গাববাড়িয়া গ্রামের শতাধিক নারী পুরুষ প্রভাবাশালীদের বিরুদ্ধে জমিদখলের অভিযোগে এর প্রতিবাদে পাথরঘাটা প্রেসক্লাবের সামনে মানবন্ধন ও বিক্ষোভ সমাবেশ শুরু করে। কোন অনুমতি ছাড়াই মানবন্ধন কর্মসূচি পালন করায় পুলিশ ছত্রভঙ্গ করে দেন।

অপরদিকে একই সময়ে চরদুয়ানী ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুর রহমান জুয়েলের বিরুদ্ধে মাদ্রাসার টাকা ও ১৫ বিঘা জমি আত্মসাতের অভিযোগে পাথরঘাটা ছাত্রলীগের উদ্যগে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ শুরু করে একই এলাকার বাসিন্দারা।

আরও পড়ুন- পটুয়াখালীতে গাড়িচালকসহ ব্যবসায়ী অপহরণ, ২০ কোটি টাকা মুক্তিপণ দাবি

এসময় উভয় পক্ষ মুখোমুখি সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। পুলিশ লাঠিচার্জ করে উভয় পক্ষকে ছত্রভঙ্গ করে দেয়। সংঘর্ষ ও পুলিশের লাঠিচার্জে উভয় পক্ষের অন্তত ১৫ জন আহত হয়।

আহতদের মধ্যে ৬ জনের নাম জানা গেছে। এরা হলেন, তুলি বেগম (৩০), মিরাজ মাতুববর (২৬), মুছা মিয়া (২২), তারা মিয়া (৩৫), ফিরোজ হোসেন (৩২) ও রফিকুল ইসলাম (৩০)।

পাথরঘাটা উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সাধারন সম্পাদক এনামুল হোসাইন বলেন, বর্তমান চেয়ারম্যান আবদুর রহমান জুয়েল মাদ্রাসার টাকা আত্মসাৎ করায় এলাকাবাসী মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করার সময় জুয়েল সমর্থকরা হামলা চালিয়েছে। এতে আমাদের অন্তত ১০ জন আহত হয়েছে।

এ দিকে বর্তমান চেয়ারম্যান আবদুর রহমান জুয়েল বলেন, এনামুল হোসাইন এলাকায় জমি জবরদখল করতে গিয়ে হামলা ও মামলা দিয়ে হয়রাণি করে আসছে। এর প্রতিবাদে আমার ইউনিয়নের ভুক্তভোগীরা মানবন্ধন করতে আসলে এনামুল লোকজন নিয়ে অতর্কিত হামলা চালিয়েছে। এতে অন্তত ২০ জন আহত হয়েছে, যাদের পাঁচজনকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

আরও পড়ুন-  গলাচিপায় ইসমাইল হত্যা মামলায় জড়িত আসামিদের গ্রেপ্তারের দাবিতে মানববন্ধন

পাথরঘাটা উপজেলা নির্বাহী অফিসার হোসাইন মুহাম্মদ আল-মুজাহিদ বলেন, সকলকে শান্ত থাকার জন্য অনুরোধ করছি। স্মারকলিপি পেয়েছি। অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। বর্তমানে পরিস্থিতি স্বাভাবিক রয়েছে।

এ বিষয়ে পাথরঘাটা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবুল বাশার বলেন, প্রশাসনকে অবহিত না করে উভয়পক্ষ মানববন্ধন করতে চাইলে আমরা তাদেরকে বাধা দিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে এনেছি। বর্তমানে পরিবেশ শান্ত রয়েছে।


আপনার মতামত লিখুন :
0 0 votes
Article Rating
Subscribe
Notify of
guest
0 Comments
Inline Feedbacks
View all comments
আরো সংবাদ...

নিউজ বিভাগ..