নির্বাচন কমিশনকে ১১ প্রস্তাব দেবে আওয়ামী লীগ

৭১বিডি২৪ডটকম ॥ অনলাইন ডেস্ক;


আওয়ামী লীগ


রাজনৈতিক দলগুলোর সঙ্গে সংলাপের ধারাবাহিকতায় নির্বাচন কমিশনকে ১১টি প্রস্তাব দেবে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ। বুধবার সরকারি দল আওয়ামী লীগের সঙ্গে বসবে নির্বাচন কমিশন (ইসি)। বেলা ১১টা থেকে শুরু হওয়া সংলাপে ২২ সদস্যের আওয়ামী লীগের প্রতিনিধি দলে নেতৃত্ব দেবেন দলটির সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

দলের পক্ষ থেকে ১১টি প্রস্তাব তুলে ধরা হবে নির্বাচন কমিশনের কাছে। আওয়ামী লীগের একাধিক কেন্দ্রীয় নেতা এসব তথ্য জানিয়েছেন।

এছাড়া গণপ্রতিনিধিত্ব আদেশের (আরপিও) কিছু ধারা, সেখানে সন্নিবেশিত অস্পষ্টতা, অসামঞ্জস্যতা ও সংশোধনে কিছু প্রস্তাব দেয়া হবে। আওয়ামী লীগের প্রস্তাবগুলোর মধ্যে বেশকিছু ইসি আগেই কার্যক্রম শুরু করেছে। নির্বাচন কার অধীনে হবে বা ওই সময় সরকার ব্যবস্থা কী হবে সে বিষয়ে কোনো প্রস্তাবনা নেই। নির্বাচনে পর্যবেক্ষক সংস্থা ও গণমাধ্যমের ভূমিকা নিয়ে সুস্পষ্ট সুপারিশ করা হচ্ছে। ইভিএম ব্যবহারের সুপারিশের পাশাপাশি সেনা মোতায়েনের বিরোধিতা থাকছে আওয়ামী লীগের প্রস্তাবনায়।

আওয়ামী লীগের প্রস্তাবনায় আরপিও এর বাংলা সংস্করণে ইসির উদ্যোগকে স্বাগত জানিয়ে তাতে দলটির সমর্থন থাকবে বলে জানানো হবে। দলটির প্রস্তাবনায় নির্বাচনে অবৈধ অর্থ ও পেশীশক্তির ব্যবহার রোধে নির্বাচন সংক্রান্ত সংবিধানের নির্দেশনা ও বিদ্যমান আইনের নিরপেক্ষ ও কঠোর প্রয়োগের সুপারিশ থাকবে। এতে প্রজাতন্ত্রের কর্মে নিয়োজিত ও নির্বাচনী দায়িত্বপ্রাপ্ত ব্যক্তি বা সংস্থার নির্বাচনে অপেশাদার ও দায়িত্বহীন আচরণের জন্য কঠোর আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের প্রস্তাব দেয়া হবে।

নির্বাচন পরিচালনায় বেসরকারি সংস্থা বা প্রতিষ্ঠানের কোনো কর্মচারীদের নিয়োগ না দিয়ে প্রজাতন্ত্রের দায়িত্বশীল কর্মচারীদের থেকে যোগ্যতার ভিত্তিতে প্রিসাইডিং অফিসার, সহকারী প্রিসাইডিং অফিসার ও পোলিং অফিসার নিয়োগের সুপারিশ করবে আওয়ামী লীগ।

আওয়ামী লীগ তার সুপারিশে রাজনৈতিক দলের প্রার্থী মনোনয়নের ক্ষেত্রে ওই দলের তৃণমূল নেতাকর্মীদের ভোটের মাধ্যমে জাতীয় নির্বাচনে অংশগ্রহণে আগ্রহী প্রার্থীদের বাছাই করে সংশ্লিষ্ট দলের মনোনীত প্রার্থীদের একটি চূড়ান্ত প্যানেল প্রণয়নে আরপিও করতে বলবে।

এছাড়া দেশি-বিদেশি পর্যবেক্ষক নিয়োগে সর্বোচ্চ স্বচ্ছতা ও সতর্কতা অবলম্বনসহ কোনোভাবেই কোনো বিশেষ দল বা ব্যক্তির প্রতি আনুগত্যশীল হিসেবে পরিচিত বা চিহ্নিত ব্যক্তি, গোষ্ঠী বা সংস্থাকে নির্বাচন পর্যবেক্ষণের দায়িত্ব প্রদান না করা হয় তার প্রস্তাব দেবে তারা।

ইলেক্ট্রনিক ও প্রিন্ট মিডিয়াসহ সব গণমাধ্যমকর্মীদের নির্বাচনী বিধি-বিধানের প্রতি শ্রদ্ধাশীল থেকে দায়িত্ব পালনের জন্য কার্যকর নির্দেশনা প্রদান, গণমাধ্যম কর্মীদের উপযুক্ত পরিচয়পত্র প্রদান ও তাদের দায়িত্ব কর্ম এলাকা নির্ধারণ করে দেয়া; পোলিং এজেন্টদের কেন্দ্রভিত্তিক তালিকা ছবি ও এনআইডিসহ নির্বাচনের অন্তত তিনদিন আগে রিটার্নিং ও সহকারী রিটার্নিং অফিসারের কাছে প্রদান নিশ্চিতকরণ এবং প্রিসাইডিং অফিসার কর্তৃক তাদের পরিচয়পত্র নিশ্চিত হয়ে ভোটকক্ষে প্রবেশ ও নির্বাচন শেষ না হওয়া পর্যন্ত অবস্থানের অনুমতি প্রদানের বিষয়টি নিশ্চিত করা; বিরাজমান সব বিধিবিধানের সাথে জনমানুষের ভোটাধিকার সুনিশ্চিত করতে আধুনিক ও গণতান্ত্রিক রাষ্ট্রসমূহের মতো আগামী সংসদ নির্বাচনে ইভিএম এর মাধ্যমে ভোটদান প্রবর্তন করার সুপারিশ করবে আওয়ামী লীগ।

ক্ষমতাসীন এ দলটি সংলাপে নির্বাচনে সেনাবাহিনী মোতায়েনের বিরোধিতা করবে। দলটি মনে করছে, প্রতিরক্ষা বাহিনীকে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর অন্তর্ভুক্তি বা নির্বাচনকালীন তাদের নিয়োগের বিষয়ে কোনো কোনো রাজনৈতিক দল উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে দাবি তুলেছে। দেশের বিরাজমান আইন ও সাংবিধানিক নিয়ম-কানুনের সাথে সাংঘর্ষিক বলেও আওয়ামী লীগ তার প্রস্তাবনায় তুলে ধরবে।

তবে ফৌজদারি কার্যবিধির ১২৯-১৩১ ধারা মোতাবেক আইন-শৃঙ্খলা রক্ষার ক্ষেত্রে কোন পরিস্থিতিতে প্রতিরক্ষা বাহিনীর সদস্যদের নিয়োগ করা যাবে উল্লেখ করে রাষ্ট্রের সর্বোচ্চ বাহিনীকে সাধারণ আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর অন্তর্ভুক্ত করা হলে তাদের বিশেষায়িত অবস্থান বিনষ্ট হবে বলে ইসিতে তারা জানাবে।

আওয়ামী লীগ তার প্রস্তাবনায় সীমানা পুনঃনির্ধারণের সিদ্ধান্ত ইসির ওপর ছেড়ে দেয়ার কথা বললেও প্রকারান্তরে এর বিরোধিতা করবে।

২০১১ সালের আদমশুমারির ভিত্তিতে ২০১৪ সালের নির্বাচনের আগে সীমানা পুনঃনির্ধারণ করা হয়েছে উল্লেখ করে নির্বাচনের কাছাকাছি সময় এসে আবারও সীমানা পুনঃনির্ধারণ করতে গেলে জটিলতা দেখা দেয়ার আশঙ্কা থাকবে বলে তারা জানাবে।

আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে ১১ দফা প্রস্তাবনার পাশাপাশি আরপিও’র কিছু ধারা-উপধারার সংশোধনী প্রস্তাব দেয়া হবে। দলটি সংবিধানের সঙ্গে সামঞ্জস্য রেখে এ সাংবিধানিক প্রতিষ্ঠানটির নাম বাংলাদেশ নির্বাচন কমিশন বা নির্বাচন কমিশন বাংলাদেশ এর পরিবর্তে শুধু ‘নির্বাচন কমিশন’ রাখার কথা বলবে।

এছাড়া আরপিও সংশোধন করে ভোটকেন্দ্রে মোবাইল নিয়ে প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা, এনআইডির টিপসই ও স্বাক্ষরের সাথে মিল রেখে ব্যালট পেপারের কাউন্টার ফয়েলের (মুড়ি) স্বাক্ষর ও টিপসই, ব্যালট পেপার ছিনতাই হলে প্রিসাইডিং অফিসারের করণীয় সুনির্দিষ্টকরণ, একাধিক দলের মনোনীত প্রার্থীকে কোনো দলের প্রতীক বরাদ্দ দেয়া যাবে না মর্মে বিধান নির্ধারণ, জামানত বাড়ানো, নির্বাচনী মামলা নিষ্পত্তির সময় বেঁধে দেয়া, আরপিও এর ৪৪ এ এ এর উপানুচ্ছেদ (২) এর ‘if he is an income tax assessee’ বিলোপ, ৭৩ এর (২বি) এ bribery শব্দের পর ‘as defined in Article 75`, `personation` শব্দের পর as defined in Article 76` ও `undue influence` শব্দের পর as defined in Articles 77` যুক্ত করা, ৭৩, ৭৪, ৭৮, ৮১ এ উল্লেখিত সর্বোচ্চ সাজা সাত বছরের স্থলে পাঁচ বছর ও সর্বনিম্ন ১ বছর করা, ৯১ (বি) ও (ই) অনুচ্ছেদ বিলোপ, কমিশনকে কেউ সহযোগিতা না করলে তার ক্ষেত্রে শাস্তির বিধান যুক্তকরণ, বিচারিক কর্মকর্তাদের সমন্বয়ে কমিটি গঠনে সুপ্রিম কোর্টের পূর্বানুমতি গ্রহণে ৯১ এ ধারা সংশোধনসহ আরপিও বেশকিছু সংশোধনীর সুপারিশ করবে।

আওয়ামী লীগের একটি সূত্র প্রতিনিধি দলে ২২ জনের থাকার বিষয়টি নিশ্চিত করেছে। ওবায়দুল কাদের ছাড়া অন্য সদস্যরা হলেন আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদ সদস্য আমির হোসেন আমু, তোফায়েল আহমেদ, এইচ টি ইমাম, রাশিদুল আলম, অ্যাম্বাসেডর জমির, ড. মসিউর রহমান, সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য মতিয়া চৌধুরী, শেখ ফজলুল করিম সেলিম, মোহাম্মদ নাসিম, সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম, আবদুর রাজ্জাক, লে. কর্নেল (অব.) ফারুক খান, রমেশ চন্দ্র সেন, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব-উল আলম হানিফ, দীপু মণি, জাহাঙ্গীর কবির নানক, আবদুর রহমান, কোষাধ্যক্ষ এইচ এন আশিকুর রহমান, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক হাছান মাহমুদ, দপ্তর সম্পাদক আবদুস সোবহান গোলাপ, কার্যনির্বাহী সদস্য রিয়াজুল কবির কাওছার।

তবে প্রতিনিধি দলের তালিকায় থাকা সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম বিদেশে আছেন বলে জানা গেছে। সংলাপে তার অংশগ্রহণের বিষয়টি এখনও নিশ্চিত নয় বলে একটি সূত্র জানিয়েছে।

গত রোববার সচিবালয়ে ওবায়দুল কাদের সাংবাদিকদের বলেছেন, ইসির সঙ্গে সংলাপে অংশ নিয়ে তারা ১১ দফা সুনির্দিষ্ট প্রস্তাবনা দেবেন। তবে এসব প্রস্তাবে কী থাকবে তা এখনই বলবেন না।

(জাগোনিউজ)

Recommended For You

About the Author: HumayrA

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *