ব্রেকিং নিউজ
মঙ্গলবার, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০৬:১১ অপরাহ্ন

দশ টাকার জন্য দ্বিতীয় শ্রেণিতে পড়ুয়া ছাত্রকে গলা কেটে হত্যা

চুয়াডাঙ্গা প্রতিনিধি / ১৩৭ ভোট :
প্রকাশ : শনিবার, ১২ ফেব্রুয়ারী, ২০২২

চুয়াডাঙ্গার দামুড়হুদায় দশ টাকার জন্য ইয়ামিন হোসেন (৯) নামের এক শিশুকে গলা কেটে হত্যার অভিযোগ উঠেছে।

শনিবার (১২ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে উপজেলার কার্পাসডাঙ্গা ইউনিয়নের কানাইডাঙ্গা গ্রামের একটি আমবাগান থেকে লাশটি উদ্ধার করেন স্থানীয়রা।

নিহত ইয়ামিন হোসেন দামুড়হুদা উপজেলার জয়রামপুর গ্রামের সেলিম রেজার ছেলে। শিশুটি কানাইডাঙ্গা বৃত্তিপাড়া প্রাথমিক বিদ্যালয়ের দ্বিতীয় শ্রেণিতে পড়ুয়া ছাত্র ছিল।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, বাবা-মায়ের বিচ্ছেদের পর মায়ের সঙ্গে নানার বাড়িতে থাকতো ইয়ামিন। দুপুরে বন্ধুদের সঙ্গে বাড়ির পাশে খেলছিল ইয়ামিন ও তার বড় ভাই ইমন। সে সময় জাহিদ ৩০ টাকা দিয়ে মুড়ি কেনার জন্য ইয়ামিনকে দোকানে পাঠায়। ২০ টাকার মুড়ি কিনে অবশিষ্ট ১০ টাকা খরচ করে ইয়ামিন। বাকি টাকা ফেরত দিতে না পারায় তাকে গাছের সঙ্গে বেঁধে মারধর করে জাহিদ। এ সময় ইয়ামিনের বড় ভাই ইমন এসে ঘটনা পরিবারের লোকজনদের জানায়। এরপর ঘটনাস্থল গিয়ে ইয়ামিনের মরদেহ পড়ে থাকতে দেখেন স্বজনরা। পরে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন দামুড়হুদা মডেল থানার ওসি।

অভিযুক্ত হত্যাকারী জাহিদ হাসান (১৬) পলাতক রয়েছে। সে কার্পাসডাঙ্গা ইউনিয়নের ৭ নম্বর ওয়ার্ড কানাইডাঙ্গা গ্রামের মেম্বার আশাদুল ইসলামের ছেলে।

দামুড়হুদা মডেল থানার ওসি জানান, ‘শিশু ইয়ামিনের হত্যাকারীকে আটক করতে পুলিশি অভিযান চলছে। লাশ ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হচ্ছে। শিশুটিকে গলা কেটে হত্যা করা হয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে।’

বরগুনায় ৪৮ হাজার পিস ইয়াবাসহ একজনকে গ্রেফতার

পটুয়াখালীতে সড়ক দুর্ঘটনা নিহত ২, আহত ৩

বাল্য বিবাহ আয়োজনের দায়ে বর ও কনের বাবার অর্থদণ্ড

ইউপি সদস্যকে ইয়াবাসহ গ্রেফতার


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

আরো সংবাদ...

নিউজ বিভাগ..