শিরোনাম :
কুয়াকাটা পৌর ছাত্রলীগের বৃক্ষ রোপন কর্মসূচী পালন দশমিনায় বেসরকারী সংস্থা’র উদ্যোগে মানবিক সহায়তা প্রদান পাথরঘাটায় জুয়ার আসর থেকে ইউপি সদস্যসহ আটক-৬ সাংবাদিক ও স্বেচ্ছাসেবকদের মাঝে বামনায় হোমিও ঔষধ বিতরন হবিগঞ্জে বিপুল পরিমাণ ইয়াবাসহ ছাত্রলীগ নেতা সোহাগকে আটক স্বাস্থ্য সুরক্ষা নিশ্চিত করনে কুয়াকাটায় হোটেল মালিক কর্মচারীদের প্রশিক্ষন বামনার দক্ষিন কাকচিড়া গ্রামের রাস্তাটি এখন যেন মরন ফাঁদ প্রধানমন্ত্রী নির্দেশে কৃষকদের অত্যাধুনিক ধান মাড়াইয়ের মেশিন প্রদান-এমপি মনোরঞ্জন শীল গোপাল ফুলবাড়ীতে ‘সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোট’ এর আত্মপ্রকাশ মির্জাগঞ্জে জ্বর ও শ্বাসকষ্ট নিয়ে একজনের মৃত্যু
শনিবার, ০৬ জুন ২০২০, ০৯:২০ অপরাহ্ন
নোটিশ বোর্ড :
দেশের সকল বিভাগের জেলা, উপজেলা, থানা পর্যায়ে প্রতিনিধি আবশ্যক আগ্রহী প্রার্থীগন আমাদের সাথে যোগাযোগ করুন। মোবাইল নম্বরঃ +8801618833566, ইমেইলঃ 71bd24@gmail.com

জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট মামলার ১০ বছর সাজা সংক্রান্ত পূর্ণাঙ্গ রায় প্রকাশ

রিপোর্টার / ১৯৯ শেয়ার
আপডেটের সময়ঃ সোমবার, ২৮ জানুয়ারী, ২০১৯
ফাইল ছবি

ফাইল ছবি

ফাইল ছবি



জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে দেওয়া ১০ বছরের সাজা সংক্রান্ত পূর্ণাঙ্গ রায় প্রকাশ করেছেন হাইকোর্ট।

সোমবার (২৮ জানুয়ারি)হাইকোর্টের দেয়া পূর্ণাঙ্গ রায়ের অনুলিপি প্রকাশিত হয়েছে। দুই বিচারপতির স্বাক্ষরের পর সোমবার সুপ্রিম কোর্টের ওয়েবসাইটে ১৭৭ পৃষ্ঠার পূর্ণাঙ্গ রায়টি প্রকাশ করা হয়।

এর আগে গত ৩০ অক্টোবর এই মামলায় খালেদা জিয়ার সাজা বাড়িয়ে ১০ বছরের কারাদণ্ড দেয় হাইকোর্ট। এই মামলায় বিচারিক আদালতের রায়ে খালেদা জিয়ার পাঁচ বছরের কারাদণ্ড ও অর্থদণ্ড হয়েছিল।

বিচারিক আদালতের রায়ের বিরুদ্ধে খালেদা জিয়ার করা আপিল খারিজ করে হাইকোর্ট ওই রায় দেয়। এছাড়া এ মামলায় কারাবন্দী অপর দুই আসামি কাজী সালিমুল হক কামাল ও শরফুদ্দিন আহমেদের আপিলও খারিজ করে দেয় হাইকোর্ট। ফলে তাদেরকে নিম্ন আদালতের দেয়া ১০ বছরের কারাদণ্ডের রায় বহাল থাকে।

আসামিপক্ষের আইনজীবীরা বলেছেন, ‘রায়ের অনুলিপি পেয়ে এখন আমরা আপিল বিভাগে আপিল করবো। আপিল বিভাগেই বিষয়টির চূড়ান্ত নিষ্পত্তি হবে।’ ২০০৮ সালের ৩ জুলাই জিয়া অরফানেজ ট্রাস্টে অনিয়মের অভিযোগে রমনা থানায় এ মামলা দায়ের করে দুদক। বিচার শেষে ঢাকার পঞ্চম বিশেষ জজ আদালতের বিচারক মো. আখতারুজ্জামান গত ৮ ফেব্রুয়ারি এই মামলায় খালেদা জিয়াকে পাঁচ বছরের কারাদণ্ড ও অর্থদণ্ড দেন।

রায়ে খালেদা জিয়ার বড় ছেলে ও বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান, সাবেক সাংসদ কাজী সালিমুল হক কামাল, সাবেক মুখ্য সচিব কামাল উদ্দিন সিদ্দিকী, ব্যবসায়ী শরফুদ্দিন আহমেদ ও মমিনুর রহমানকে এই পাঁচ আসামির প্রত্যেককে ১০ বছর করে সশ্রম কারাদণ্ড দেওয়া হয়। পাশাপাশি ছয় আসামির প্রত্যেককে ২ কোটি ১০ লাখ ৭১ হাজার ৬৪৩ টাকা ৮০ পয়সা অর্থদণ্ডে দণ্ডিত করা হয়। অর্থদণ্ডের টাকা প্রত্যেককে সম-অঙ্কে প্রদান করার কথা বলা হয়।

এ মামলায় তারেক রহমানসহ বাকি পাঁচ আসামিকে ১০ বছর সাজা দিলেও মুখ্য আসামিকে কম দণ্ড দেয়ার কারণ ব্যাখ্যা করে বিচারক বলেন, অভিযোগ সন্দেহাতীতভাবে প্রমাণিত হলেও বয়স ও সামাজিক মর্যাদার কথা বিবেচনা করে খালেদা জিয়াকে পাঁচ বছরের কারাদণ্ড দেয়া হয়েছে। রায়ের পর থেকেই কারাবন্দী রয়েছেন সাবেক এই প্রধানমন্ত্রী।

নিম্ন আদালতের রায়ের অনুলিপি হাতে পেয়ে খালেদাসহ কারাবন্দী তিন আসামি সাজা থেকে খালাস চেয়ে হাইকোর্টে আপিল করেন। এছাড়া এ মামলায় খালেদা জিয়া মুখ্য আসামি হওয়া সত্ত্বেও পাঁচ বছরের কারাদণ্ড দেয়া অপর্যাপ্ত হয়েছে উল্লেখ করে তা বৃদ্ধির দাবিতে দুদক হাইকোর্টে একটি রিভিশন আবেদন করে। পরে এসব আবেদনের শুনানি শেষে গত ৩০ অক্টোবর দুদকের আবেদন মঞ্জুর করে খালেদা জিয়াকে ১০ বছর কারাদণ্ড দেয় হাইকোর্ট। এছাড়া সব আসামির আপিল খারিজ করে আদালত। ফলে অপর দুই আসামির ১০ বছর সাজাও বহাল থাকে।

বাংলাদেশে কোরোনা

সর্বশেষ (গত ২৪ ঘন্টার রিপোর্ট)
আক্রান্ত
মৃত্যু
সুস্থ
পরীক্ষা
২,৬৩৫
৩৫
৫২১
১২,৪৮৬
সর্বমোট
৬৩,০২৬
৮৪৬
১৩,৩২৫
৩৮৪,৮৫১

আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো সংবাদ