জনতার হাতে পরকিয়া প্রেমিক যুগল আটক

মোঃ নজরুল ইসলাম,আমতলী (বরগুনা):

বরগুনার আমতলী উপজেলার আঠারোগাছিয়া ইউনিয়নের ৭নং ওয়াডের গোডংগা গ্রামের মৃত লাল মিয়া হাওলাদারের ছেলে জাফর হওলাদার এর স্ত্রী মোসাঃ রিনা বেগম পর পুরুষের সাথে রাত কটানো অবস্থায় জনতার হাতে ধরা পরার কথা শোনা গেছে।

সরজমিনে গিয়ে স্থানীয়দের কাছে যানা যায় কুকুয়া ইউনিয়নের পশ্চিম চুনাখালী গ্রামের সেরাজ মাতুবরের ছেলে রেজাউল মতুবরের সাথে রিনা বেগমের র্দীঘ দিন যাবত পরকিয়া প্রেমের সর্ম্পক, রিনা বেগমের স্বামী জাফর হাওলাদার ঢাকা থাকেন, এসুজোগে রেজাউল মাঝে মধ্যেই রিনা বেগমের ঘরে রাত কাটায়।

এই ঘটনা এলাকার লোকজন টের পায়, গত ২৫ জুলাই ২০১৬ ইং তারিখ বিকাল দিকে ঐ এলাকায় রেজাউলের উপস্থিতি দেখে এলাকার লোকজন রেজাউলকে নজরে রাখেন, সন্ধা হতেই রেজাউল নির উদ্দেশ হয়ে যায়। এলাকার লোকজন অনেক খোজা খুজি করে রেজাউলকে না পেয়ে রিনা বেগমের বাড়িতে চলে যায়। রাত তখন আনুমনকি ১.৩০ মিঃ। এলাকার লোকজনের উপস্থিতি টের পেয়ে রিনা বেগমের ঘর থেকে রেজাউল দৌরে পালিয়ে যায়।

অনেকে চেষ্টা করেও এলাকার লোকজন ধরতে পারেনি রেজাউলকে । এলাকার লোকজন যানায় রিনা বেগমের ঘর থেকে একটা মানি ব্যাগ পাওয়া গেছে মানি ব্যাগের ভিতরে রেজাউলের একটি আইডি কার্ড ও ৩২টাকা পাওয়া গেছে।

এ বিষয় জাফর হাওলাদারের ভাই সোরাব হাওলাদার ও হাবিব হাওলাদার প্রতিবেদককে জানিয়েছেন রিনা বেগম শুধু এই বারই ঘটনা ঘটাননি আরো অনেক লোকের সাথে পরোকিয়া প্রেমের সর্ম্পক আছে। এ বিষয় এলাকার লোকজন এই রিনা বেগমের মত দুশচরিত্রা নারীর হাত থেকে যুব সমাজকে রক্ষাত্রে প্রশাষনের সহযোগীতা কামনা করছেন।

এ বিষয়ে আঠারোগাছিয়া ইউপি চেয়ারম্যান মোঃ হারুন অর-রশিদ যানিয়েছেন বিষয়টি আমি খতিয়ে দেখবো এবং প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিব।

এ বিষয়ে রিনা বেগম প্রতিবেদককে এরিয়ে গিয়েছেন এবং কোন সদ উত্তর দিতে পারেননি। এব্যপারে রেজাউলের বাড়িতে গেলে দেখা মিলেনি রেজাউলের।

Recommended For You

About the Author: HumayrA

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *