চালের আমদানি কি পরিমান: দুই মন্ত্রীর দুই উত্তর

114

kamrul-tofayel

২০১৭-১৮ অর্থবছরে চাল আমদানির পরিমাণ নিয়ে দুই মন্ত্রী দুই ধরনের তথ্য দিয়েছেন। মঙ্গলবার (৩০ জানুয়ারি) জাতীয় সংসদে সরকারি দলের সংসদ সদস্য হাবিবুর রহমানের প্রশ্নের জবাবে বাণিজ্যমন্ত্রী জানান, চলতি ২০১৭-১৮ অর্থবছরে গত ২৬ ডিসেম্বর পর্যন্ত ২২ লাখ ৩৮ হাজার মেট্রিক টন চাল আমদানি করা হয়েছে। আর অন্যদিকে সরকারি দলের সাংসদ শেখ মো. নুরল হকের প্রশ্নের জবাবে খাদ্যমন্ত্রী কামরুল ইসলাম বলেন, চলতি অর্থবছরে ১৫ লাখ মেট্রিক টন চাল আমদানির লক্ষ্যমাত্রা রয়েছে।এর মধ্যে আট লাখ মেট্রিক টন দেশের বন্দরে এসে পৌঁছেছে। ডেপুটি স্পিকার ফজলে রাব্বি মিয়ার সভাপতিত্বে বৈঠক শুরু হওয়ার পর প্রশ্নোত্তর অনুষ্ঠিত হয়।

চালের দাম বাড়ার কারণ ব্যাখ্যা করে খাদ্যমন্ত্রী বলেন, পাহাড়ি ঢল, আকস্মিক বন্যা, ধানে ব্লাস্ট রোগসহ বিভিন্ন কারণে বোরো ফসলের ক্ষয়ক্ষতি হয়। এতে খোলা বাজারে চালের দামে ঊর্ধ্বগতি দেখা দেয়। এ পরিস্থিতিতে সরকারি ও বেসরকারি উদ্যোগে বিপুল পরিমাণে চাল দেশে আসায় চালের দাম কমে স্বাভাবিক পর্যায়ে আসতে শুরু করে। সরকারের উদ্যোগে মজুত বৃদ্ধি পাওয়ার পাশাপাশি চালের দাম কমেছে। সব শ্রেণির মানুষের জন্য চালের দাম সহনীয় পর্যায়ে আছে।

স্বতন্ত্র সাংসদ রুস্তম আলী ফরাজীর প্রশ্নের জবাবে বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ বলেন, পেঁয়াজের উৎপাদন, আমদানি ও বিপণনব্যবস্থায় কোনো ধরনের সিন্ডিকেট কাজ করেনি। বন্যায় ভারতের বাজারে মূল্যবৃদ্ধি ও বাংলাদেশে বন্যায় স্থানীয়ভাবে মজুত করা পেঁয়াজের একটি অংশ নষ্ট হওয়ায় স্থানীয় বাজারে দাম বেড়েছে।

সরকারি দলের মুহা. গোলাম মোস্তফা বিশ্বাসের প্রশ্নের জবাবে প্রবাসীকল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থানমন্ত্রী নুরুল ইসলাম জানান, জনশক্তি, কর্মসংস্থান ও প্রশিক্ষণ ব্যুরোর ছাড়পত্র নিয়ে বিদেশগামী কর্মীর সংখ্যা (ডিসেম্বর-১৭ পর্যন্ত) ১ কোটি ১৪ লাখ ৬৪ হাজার ৯৪৩ জন।

সরকারি দলের মো. আবদুল্লাহর প্রশ্নের জবাবে প্রবাসীকল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থানমন্ত্রী নুরুল ইসলাম বলেন, মালয়েশিয়া থেকে কোনো চাহিদা না থাকায় বর্তমানে সরকারি পর্যায়ে কোনো কর্মী পাঠানো হচ্ছে না। তবে বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় জিটুজি প্লাস প্রক্রিয়ায় সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষরের পর থেকে ৭৫ হাজার ২৪০ জন কর্মী মালয়েশিয়া গেছেন (ডিসেম্বর ২০১৭ পর্যন্ত)।

সরকারি দলের দিদারুল আলমের প্রশ্নের জবাবে বৈদেশিক কর্মসংস্থানমন্ত্রী বলেন, সরকারের গৃহীত নানামুখী পদক্ষেপের ফলে ২০১৭ সালে ১০ লাখ ৮ হাজার ৫২৫ জন কর্মী বিদেশে গেছেন।

You might also like

Leave A Reply

Your email address will not be published.