ঘরোয়া পরিবেশে চুল পড়ার ১০ প্রতিকার

:: ৭১বিডি২৪ডটকম :: লাইফস্টাইল ডেস্ক ::


ঘরোয়া পরিবেশে চুল পড়ার ১০ প্রতিকার


চুল পড়া এই সময়ের একটি কমন সমস্যা। দিন দিন বেড়েই চলেছে এ সমস্যা। কারও চুল বেশি পড়ে, কারও কম। কিন্তু সমস্যা যেমন আছে তেমনই রয়েছে সমাধানও। ঘরোয়া উপায়ে কীভাবে চুলের পরিচর্যা করবেন তারই কিছু টিপস রইল আপনাদের জন্য।

চুল পড়া রোধে কিছু খাবারের নাম জানিয়েছে স্বাস্থ্যবিষয়ক ওয়েবসাইট ডেমিক। আসুন জেনে নিই সেগুলো সম্পর্কে-

১. ডাব-

ডাবের মধ্যে রয়েছে ভিটামিন ‘ই’ ও চর্বি। এটি চুলের আর্দ্রতা বজায় রাখে এবং চুলকে স্বাস্থ্যকর করে। রোজ এক গ্লাস ডাবের পানি পান করুন। কিছু দিন পর দেখবেন চুল পড়া কমে গেছে।

২. এলাচ-

এলাচ চুলের গোড়া শক্ত করে। তাই চুলকে শক্ত ও স্বাস্থ্যকর করতে খাদ্যতালিকায় এলাচ রাখুন। এটি চুল পড়া বন্ধ করবে।

৩.আমলকী-

প্রাচীন সময় থেকেই চুলের সৌন্দর্য রক্ষা করতে এ উপাদানটি ব্যবহার হয়ে আসছে। এতে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন ‘সি’ থাকে, যা চুল পড়া রোধ করে শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতাও বাড়ায়।

৪. হেয়ার প্যাক-

বাড়িতে হেয়ার প্যাক তৈরি করে লাগাতে পারেন। চাইলে নিমের পেস্ট ব্যবহার করতে পারেন। অ্যালোভেরাও মাথার চুল পড়া আটকানোর ক্ষেত্রে বেশ উপকারী।

৫- পেঁয়াজের রস

পেঁয়াজের রসে প্রচুর সালফার থাকে। চুলের গোড়ায় লাগালে মাথা ঠাণ্ডা থাকে। আবার এর ফলে স্কাল্প এলাকায় রক্ত সঞ্চালনও বাড়ে। ক্ষতিকারক ব্যাক্টেরিয়াও নষ্ট হয়।

৬. ফ্ল্যাক্সসিড-

ফ্ল্যাক্সসিডের মধ্যে রয়েছে চুল বড় করার পুষ্টি এবং ওমেগা ৩ ফ্যাটি অ্যাসিড। নিয়মিত ফ্ল্যাক্সসিড খেলে চুলের বৃদ্ধি ভালো হয়।

৭. বেশি করে পানি পান করুন-

পানি কম পান করা চুলকে দুর্বল করে দেয়। তাই চুল পড়া রোধে পর্যাপ্ত পরিমাণ পানি পান করুন। প্রতিদিন অন্তত ১০-১২ গ্লাস পানি পান করা চুল পড়া রোধে সাহায্য করবে।

৮. বিটের রস-

শরীরের পুষ্টির অভাবেই চুল বেশি পড়ে। এর প্রতিরোধে বিটের রস অনবদ্য। এতে প্রচুর পরিমাণে পুষ্টিকর উপাদান থাকে। যা চুল পড়া বন্ধ করতে সাহায্য করে।

৯. নারিকেল কিংবা আমন্ড তেল-

হ্যাঁ, তেল অনেকেই মাথায় দিয়ে থাকেন। তবে তেল দেয়ারও নিয়ম আছে। প্রথমে একটি বাটিতে তেল নিয়ে তা হালকা গরম করে নিন। এবার চুলের গোড়ায় তেল দিয়ে ম্যাসাজ করতে থাকুন। অল্প সময়েই উপকার পাবেন।

১০. বেসন, পাকা পেঁপে ও লেবুর রস-

হাতে যদি সময় থাকে, তাহলে বেসন, পাকা পেঁপে ও লেবুর রস দিয়ে একটি মিশ্রণ তৈরি করে ফেলুন। মিশ্রণটি স্কাল্পে লাগিয়ে রাখুন ঘন্টাখানেক। তারপর পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।

Recommended For You

About the Author: HumayrA

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *