বুধবার, ২১ অক্টোবর ২০২০, ০২:১৫ অপরাহ্ন
নোটিশ বোর্ড :
দেশের সকল বিভাগের জেলা, উপজেলা, থানা পর্যায়ে প্রতিনিধি আবশ্যক আগ্রহী প্রার্থীগন আমাদের সাথে যোগাযোগ করুন। মোবাইল নম্বরঃ +8801618833566, ইমেইলঃ 71bd24@gmail.com

গলা ব্যথায় ভূগছেন? ব্যথা কমানোর ঘরোয়া উপায়

নিজস্ব প্রতিবেদক; / ২৯৬ শেয়ার
আপডেটের সময়ঃ শুক্রবার, ২৬ জুন, ২০২০

মহামারী করোনা ভাইরাস (কোভিট-১৯) এর আক্রান্তের সংখ্যা দিন দিন বেড়েই চলেছে। সাধারণ জ্বর, ঠাণ্ডা কাশি, গলা ব্যথা ডায়রিয়া কোভিড-১৯ এর অন্যতম উপসর্গ।

এসব উপসর্গ করোনা ভাইরাসের লক্ষন সারাতে তেমন কোনো প্রতিষেধক নেই। তাই ঘরোয়া পরিবেশের উপায়েই ভরসা রাখুন। জেনে নিন গলা ব্যথা হলে কি করবেন-

আরও পড়ুন- লেবু পানির সঙ্গে হলুদ মিশিয়ে খেলে জাদুকরী উপকারিতা!

আদা-
আদা আদা-য় অ্যান্টি-ইনফ্ল্যামেটরি এবং অ্যান্টি-ব্যাকটেরিয়াল বৈশিষ্ট্যের জন্য এটি গলা ব্যথা সারাতে সহায়তা করে। পানি গরম করে তাতে কয়েক টুকরো আদা দিন। এটি প্রায় ৫-১০ মিনিট ফোটান। দিনে কমপক্ষে দুইবার এই পানি পান করুন। গলা ব্যথা দূর হবে।

লেবুর রস-
লেবুর রস বিশেষজ্ঞদের মতে, লেবু আমাদের শরীরের টক্সিন দূর করার ক্ষেত্রে খুব উপকারি। গলা ব্যথা হলে একগ্লাস গরম পানিতে লেবুর রস ও এক চা চামচ মধু ভালোভাবে মিশিয়ে নিন। দিনে অন্তত দুইবার পান করুন। গলা ব্যথা ও টনসিলের সমস্যা দূর হবে দ্রুত।

লবণ-পানির গার্গল-
লবণ পানির গারগল গলা ব্যথা হলে এর প্রাথমিক চিকিৎসা হল গরম পানিতে লবণ দিয়ে গারগল করা। এবার তাতে এক চা চামচ লবণ দিয়ে সেটি ভালোভাবে মেশার। এটি গলা ব্যথা থেকে দ্রুত মুক্তি দিতে সহায়তা করে।

আরও পড়ুন- সর্দি হলে যা করবেন

মধু-
মধু তার অ্যান্টিব্যাকটিরিয়াল এবং অ্যান্টি-ইনফ্ল্যামেটরি বৈশিষ্ট্যগুলির জন্য পরিচিত। এটি প্রাচীন কাল থেকেই গলা ব্যথা নিরাময়ের জন্য ব্যবহৃত হয়। এককাপ গরম পানিতে এক থেকে দুই চামচ মধু মেশান এবং দিনে দুই থেকে তিনবার পান করুন। ঘুমাতে যাওয়ার আগে এক চা চামচ মধু খেতে পারেন। গলা ব্যথা দূর হবে।

হলুদ-
হলুদ অ্যান্টিসেপটিক এবং অ্যান্টি-ইনফ্লেমেটরি বৈশিষ্ট্যের জন্য পরিচিত, হলুদ গলা ব্যথা নিরাময়ের অন্যতম সেরা উপাদান। অল্প হলুদ গুঁড়া এক গ্লাস গরম পানির সাথে মিশিয়ে নিন। এরপর সকালে খালি পেটে পান করুন। দুধের সাথেও হলুদ মিশিয়ে খেতে পারেন।

দারুচিনি-
দারুচিনি গলার ব্যথা থেকে দ্রুত মুক্তি দিতে সহায়তা করে। দারুচিনি কয়েক ফোঁটা দারুচিনি তেলের সঙ্গে এক চা চামচ মধু মিশ্রিত করুন। দিনে একবার এটি ব্যবহার করুন, গলার ব্যথা থেকে দ্রুত মুক্তি দিতে সহায়তা করে।

রসুন-
রসুন অ্যান্টিব্যাকটিরিয়াল এবং অ্যান্টিসেপটিক বৈশিষ্ট্যের জন্য পরিচিত এবং গলা ব্যথা নিরাময়ে সহায়তা করে। রসুনের মধ্যে থাকা অ্যালিসিন গলা ব্যথার কারণ ব্যাকটিরিয়াকে মেরে ফেলতে সহায়তা করে। এটি কাঁচাও খাওয়া যায় এবং রান্না করেও খাওয়া যায়। তাই গলা ব্যথা হলে রসুন খান।

লবঙ্গ-
লবঙ্গ মাঝে মাঝেই মুখে দুটি লবঙ্গ রাখুন এবং সেগুলি নরম হওয়ার পর চিবিয়ে গিলে ফেলুন। এটি কার্যকরভাবে গলা ব্যথা নিরাময়ে সহায়তা করে।

আরও পড়ুন- কাশি হলে যেসব খাবারগুলো খাবেন না

পরামর্শ-

  • উষ্ণ, আরামদায়ক, স্যাঁতসেঁতে নয় এ রকম ঘরে থাকতে হবে
  • আক্রান্তকালীন কথা কম বলতে হবে। এ সময় প্রচুর তরল খাবার যেমন পানি, ফলের রস, গরম চা গ্রহণ করতে হবে
  • সুস্থ না হওয়া পর্যন্ত বাড়িতে বিশ্রাম নিতে হবে। হাঁচি ও কাশির সময় মুখ ঢেকে রাখতে হবে। এর ফলে অন্যরা সংক্রমিত হবে না
  • ধোঁয়া এবং বায়ু দূষিত করে এমন কিছু থেকে দূরে থাকতে হবে
  • বাড়ির বাতাস শুষ্ক হলে তা আর্দ্র রাখার ব্যবস্থা করতে হবে
  • ধূমপান এবং ধূমপানের ধোঁয়াযুক্ত পরিবেশ থেকে দূরে থাকতে হবে

সর্তকতা:-

যে কোনো খাবার নিয়মিত খাওয়ার আগে আপনার স্বাস্থ্যের অবস্থা বুঝে এবং চিকিৎসকের পরামর্শ নিয়ে খাওয়াই ভালো। 


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো সংবাদ