গলাচিপা ও রাঙ্গাবালীতে নির্যাতনের কারনে দুই গৃহবধুর আত্মহত্যা

৭১বিডি২৪ডটকম | সঞ্জিব দাস,


গলাচিপা ও রাঙ্গাবালীতে নির্যাতনের কারনে দুই গৃহবধুর আত্মহত্যা


গলাচিপা(পটুয়াখালী): গলাচিপা ও রাঙ্গাবালীতে নির্যাতনের কারনে দুই গৃহবধু আত্মহত্যা করেছে। গৃহবধু দুইজন হলেন গলাচিপার দুই সন্তানের জননী সুলতানা বেগম(২৮) ও রাঙ্গাবালীর নববধু নিপা বেগম(১৮)। রাঙ্গাবালীর নববধু নিপা বেগম(১৮) শশুর বাড়ির নির্যাতনের জ্বালা সইতে না পেরে আত্মহত্যা করেছে বলে পরিবার সূত্রে জানা গেছে। ঘটনাটি ঘটেছে রাঙ্গাবালী উপজেলার চরমোন্তাজ ইউনিয়নের শুক্রবার দুপুরে। এ ঘটনায় নিপার শশুরকে আটক করেছে গলাচিপা থানা পুলিশ ।

জানা যায়, রাঙ্গাবালী উপজেলা থেকে বিছিন্ন চরমোন্তাজ ইউনিয়নের উত্তর চরমোন্তাজ গ্রামের ফারুক মুন্সির ছেলে সোলেমান মুন্সির সাথে চরমারগারেট গ্রামের আশ্রাফ সিকদারের মেয়ে নিপা বেগমের সাথে ৬মাস আগে বিবাহ হয়। নিপার বাবার অভিযোগ, যৌতুকের জন্য প্রায়ই তার মেয়েকে নির্যাতন করত। এক সময় স্বামী সোলেমান ১২হাজার টাকা দামের মোবাইল ফোন দাবি করে। কিন্তু দিন মজুর আশরাফ মিয়া জামাইয়ের দাবি পূরণ করতে না পারায় নববধু নিপার ওপর নির্যাতনের মাত্রা বাড়িয়ে দেয়। নির্যাতন সইতে না পেরে গত শুক্রবার দুপুরে ঘরে থাকা চালের পোকা দমনের ঔষধ পান করে। এতে মুমূর্ষু অবস্থায় সন্ধ্যা ৭টার সময় গলাচিপা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসলে কর্তব্যরত ডাক্তার তাকে মৃত ঘোষনা করে। গলাচিপা থানা পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে স্বামী সোলেমান মুন্সি হাসপাতাল থেকে পালিয়ে যায় আর নিপার শশুর ফারুক মুন্সিকে আটক করে গলাচিপা থানা পুলিশ।

অন্যদিকে, গলাচিপায় শনিবার সকালে পারিবারিক কলহের জের ধরে বিষপানে আত্মহত্যা করেছে দুই সন্তানের জননী সুলতানা বেগম(২৮)। ঘটনাটি ঘটেছে গলাচিপা উপজেলার চরকাজলের বড় শিবা গ্রামে।

জানা যায়, গলাচিপা উপজেলার বিচ্ছিন্ন চর কাজল ইউনিয়নের বড় শিবা গ্রামের আলম হাওলাদের পুত্র সজল হাওলাদারে সাথে পার্শ্ববর্তী উপজেলা চরফ্যাশনের আব্দুল্লাহপুর গ্রামের সেকান্দার গাজীর মেয়ে সুলতানা বেগমের সাথে ১৪বছর আগে বিবাহ হয়। শনিবার সকালে স্বামী স্ত্রীর মধ্যে ঝগড়া হয়। স্বামী মাঠে কাজ করতে গেলে স্ত্রী বিষ পানে আত্মহত্যা করে। পরে মুমূর্ষু অবস্থায় গলাচিপা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসলে কর্তব্যরত ডাক্তার তাকে মৃত ঘোষনা করে।

গলাচিপা থানার এসআই মোঃ জাকারিয়া জানান, নিহতদের লাশ ময়নাতদন্তের জন্য পটুয়াখালী মর্গে পাঠানো হয়েছে। নিপা বেগমের ঘটনায় রাঙ্গাবালীতে মামলা হয়েছে। সুলতানা বেগমের ঘটনায় গলাচিপা থানায় অভিযোগ পেলে মামলা হবে।

Recommended For You

About the Author: HumayrA

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *