গলাচিপায় সন্ত্রাসী কতৃক সাংবাদিক দম্পতি লাঞ্ছিত

:: ৭১বিডি২৪ডটকম :: জসিম উদ্দিন ::


গলাচিপায় সন্ত্রাসী কতৃক সাংবাদিক দম্পতি লাঞ্ছিত


:: গলাচিপা(পটুয়াখালী) :: পটুয়াখালীর গলাচিপায় অনলাইন বিজয়ের ডাক পত্রিকার সম্পাদক ও জাতীয় সাপ্তাহিক জনপ্রিয় পত্রিকার বরিশাল বিভাগীয় সম্পাদক মোঃ হাফিজ উল্লাহ্ ও তার স্ত্রী সাপ্তাহিক জনপ্রিয় পত্রিকার পটুয়াখালী জেলা প্রতিনিধি অনলাইন বিজয়ের ডাক পত্রিকার ষ্টাফ রিপোর্টার নাফিসা মুফতি অনন্যা কে সন্ত্রাসীরা লাঞ্ছিত করেছে।

গতকাল রাত আনুমানিক ১০টা ৩০ মিনিটের সময় মৃত হামেদ আলী হাওলাদারেরর পুত্র মোঃ শুকুর আলী হাওলাদার (৬৫), মোঃ শুকুর আলী হাওলাদারের পুত্র হাসান মাহাবুব (৪৬) ও মোঃ শফিউল সোহাগ (৩৮) সহ আরো অজ্ঞাত ৪/৫ জন সন্ত্রাসী ৪ নম্বর ওয়ার্ড সদর রোড অনন্যার বাবার বাসায় অতর্কিত এসে অকথ্য ভাষায় গালাগালি করে সাংবাদিক দম্পতিকে চরথাপ্পর ও কিলঘুষি মারতে থাকে এসময় আনন্যার মাও গুরুতর আহত হন, একপর্যায়ে স্থানীয় লোকজন এসে পরলে সন্ত্রাসীরা চলে যায়, যাওয়ার সময় খুন জখমের হুমকি দেয়।

সাংবাদিক নাফিসা মুফতি অনন্যা জানান আমি, আমার মা ও আমার ৩ বছরের ছোট বাচ্চাকে নিয়ে বাসায় থাকি, আমার বাবা চালিতাবুনিয়াতে শিক্ষকতা করেন সেই জন্য তিনি ওখানেই থাকেন, সপ্তাহে একবার গলাচিপা আসেন। আমার বাবার একটি লাইসেন্সকৃত বন্দুক আছে, ঘটনার দিন সেটা বাসায় ছিল। কোন দূর্ঘটনা ঘটিয়ে সন্ত্রাসীরা সেই বন্দুক লুট করে নেয়ার ষড়যন্ত্র থাকতে পারে। তিনি আরো জানান আমি বাদী হয়ে গলাচিপা থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেছি।

গলাচিপা থানার এস আই মোঃ নজরুল ইসলাম জানান একটি অভিযোগ পেয়েছি তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেব। উল্লেখ্য সন্ত্রাসী হাসান মাহাবুব সাংবাদিক নাফিসা মুফতি অনন্যার দক্ষিন পাশের বাসায় ভাড়া থাকে। মাহাবুব বিগত ৫ বছর যাবত আনন্যার পরিবারকে গালাগালি, বিভিন্ন রকম ভয়ভীতি, খুন জখম ও অনন্যার পরিবারের ভোগ দখলিয় সম্পত্তি থেকে উৎখাত করার হুমকি দিয়ে আসিতেছে। সন্ত্রাসী মাহাবুবের টয়লেটের লাইন সাংবাদিক অনন্যার বাসার সামনে থেকে ফুটা ও ফাঁটা পাইপ দিয়ে রান্না ঘরের সামনে খোলা অবস্থায় রেখে দিয়েছে যাতে অনন্যার পরিবার অতিষ্ট হয়ে তাদের বাড়িঘর রেখে চলে যায় এবং সন্ত্রাসী ও ভূমি দস্যু শুকুর আলী ও তার দুই ছেলে তা দখল করতে পারে। গলাচিপাবাসী সন্ত্রাসী ও ভূমি দস্যু শুকুর আলী ও তার দুই ছেলের হাত থেকে মুক্তি চায়।

Recommended For You

About the Author: HumayrA

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *