গলাচিপায় পৌর ছাত্রলীগের সাধারন সম্পাদকের উপর হামলা হাসপাতালে ভর্তি

:: গলাচিপা টাইমস্ :: সঞ্জিব দাস ::


গলাচিপায় পৌর ছাত্রলীগের সাধারন সম্পাদকের উপর হামলা হাসপাতালে ভর্তি


:: গলাচিপা (পটুয়াখালী) :: পটুয়াখালীর গলাচিপায় পৌর ছাত্রলীগের সাধারন সম্পাদককে হামলা করার খবর পাওয়া গেছে।

ঘটনাটি ঘটেছে নতুন লঞ্চ ঘাটের সিদ্দিক প্যাদা রোডে আহাদের দোকানের পাশের গলিতে ।

বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে পূর্ব শত্রুতার জের ধরে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে পৌর ছাত্রলীগের সাধারন সম্পাদক মো: জাহিদ হোসেনকে এলোপাথারী ভাবে মারতে থাকে। জাহিদ হোসেন এর ডাকচিৎকারে এলাকাবাসী এসে পরলে মারধর কারীরা পালিয়ে যায়। পরে জাহিদ হোসেনকে উদ্ধার করে গলাচিপা হাসপাতালে ভর্তি করে।

হাসপাতালের কর্মরত ডাক্তার আল আমিন প্রতিবেদককে জানান, জাহিদ হোসেন এর ডান কানে বারি লাগায় ডান কানটি ফেটে যায় কানে  সেলাই লেগেছে ও পিঠে একটি পোচের দাগ আছে। অনেক রক্ত খনন হয়েছে। তিনি আমার চিকিৎসাধীনে হাসপাতালে ৩য় তলায় ২ নম্বর কেবিনে ভর্তি আছে।

এ বিষয়ে উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি মো: শাহরিয়ার কামরুল প্রতিবেদককে জানান বি.এন.পি জামাত জোট আকারে জাহিদের উপরে হামলা করেছে আমরা প্রশাসনের উপরে শ্রদ্ধাশীল এ হামলার প্রশাসন যে ব্যবস্থা নিবেন আমার তারই অপেক্ষায় আছি।

উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারন সম্পাদক শরীফ আহমেদ আসিফ বলেন, এ ধরনের হামলা তৃীব্র নিন্দা জানাচ্ছি। পৌর ছাত্রলীগের সভাপতি আব্দুল্লাহ্ আল মামুন প্রতিবেদককে বলেন, গলাচিপা থানায় দরখাস্ত করেছি। আমরা আইনের আশ্রয়ে ওদেরকে প্রতিহত করব।

এ ব্যপারে জাহিদ হোসেন এর কাছে জানতে চাইলে তিনি জানান, কিছুদিন আগে র‌্যাব-৮ কর্তৃক গলাচিপা পলিথিন অভিযান করলে ঐ জায়গায় আমি যাওয়ার শত্র“তার জের ধরে আমাকে মারধর করেছে। কারা মারধর করেছে এ বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন, রহমান, রহিম, মিরাজ সহ আরো নাম না জানা ৫/৬ জন লোক কথাকাটাকাটির এক পর্যায় চরাও হয়ে আমাকে এলোপাথারী ভাবে পিটাতে থাকে আমার ডাক চিৎকারে এলাকাবাসী এসে পরলে মারধর কারীরা পালিয়ে যায়। আমি অজ্ঞান হয়ে মাটিতে লুটিয়ে পরি পরে এলাকার লোকজন আমাকে হাসপাতালে নিয়ে আসে।

গলাচিপা থানা অফিসার ইনচার্জ মো. জাহিদ হোসেন বলেন, অভিযোগ পেয়েছি আইনত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Recommended For You

About the Author: HumayrA

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *