খোলা আকাশের নিচে পাঠদান, ভেঙ্গে পড়েছে প্রাথমিক শিক্ষা কার্যক্রম !!

(৭১বিডি২৪), রাংঙ্গাবালী, পটুয়াখালী: 

আকাশের নিচে পাঠদান ॥ ভেঙ্গে পড়েছে প্রাথমিক শিক্ষা কার্যক্রম, পটুয়াখালীর রাংঙ্গাবালী উপজেলার চরমোন্তাজ ইউনিয়নের উ:চরমার্গারেট সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের একমাত্র ভবনটি চরম ঝুঁকিপূর্ণ অবস্থায় রয়েছে।

ওই প্রতিষ্ঠানের শিক্ষকরা প্রায় আড়াই শ’ শিক্ষার্থীর ক্লাস নিচ্ছেন এখন খোলা আকাশের নিচে। গত বর্ষা মৌসুমে জরাজীর্ণ এ ভবন থেকে চুইয়ে পানি পড়েছে। নতুন ভবন না হলে আসন্ন বর্ষায় পাঠদান সম্পূর্নভাবে বন্ধ হবারও আশংকা করছেন স্কুল ম্যানেজিং কমিটি ও শিক্ষকরা।

খোলা আকাশের নিচে পাঠদান, ভেঙ্গে পড়েছে প্রাথমিক শিক্ষা কার্যক্রম !!ইতোমধ্যে অনেক শিশু স্কুলে আসা বন্ধ করে দিয়েছে। এ অবস্থায় এখানকার প্রাথমিক শিক্ষা ব্যবস্থা সম্পূর্ণ ভেঙ্গে পড়েছে।

প্রতিষ্ঠান সুত্র জানিয়েছে, ১৯৮৯অর্থ বছরে স্থানীয় লোক জনের অর্থায়নে প্রায় ১ লাখ টাকা ব্যয়ে ৪ কক্ষের একটি টিনের ঘড় নির্মিত হয়। গত বছর চারেক ধরে ৫টি শ্রেনির পাঠদানসহ প্রশাসনিক কার্যক্রম চালাতে অনেকটা হিমশিম খেতে হয়েছে। বর্তমানে একটি কক্ষ ব্যবহারের উপযোগী থাকলেও বাকীগুলো জরাজীর্ণ।

বছরের শুরুতে স্কুল মাঠে পাটি বিছিয়ে শিক্ষার্থীদের ক্লাশ নিতে হচ্ছে। ওই প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থী মো:মোকসেদুল জানিয়েছে, স্কুলের বাইরে ক্লাশ নেয়ায় পড়ায় তারা মনযোগী হতে পারছে না। সারাদিন রোদে পুড়ে ক্লাস করতে গিয়ে তাদের অনেকে জ্বর কাশিসহ নানা অসুখে ভুগছে।

তৃতীয় শ্রেনীর শিক্ষার্থী রিয়ামনি জানায়, বই খাতাসহ বাড়ি থেকে একটি পাটি নিয়ে আসতে তার অনেক কষ্ট হয়, তবু উপায় নেই।

বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো:ইলিয়াচ বাশার বলেন, ভবনের প্রয়োজনীয়তা উল্লেখ করে স্কুল ম্যানেজিং কমিটির সিদ্ধান্তক্রমে সরকারের একাধিক দপ্তরসহ উপজেলা শিক্ষা অফিসে লিখিতভাবে জানানো হয়েছে। স্কুল পরিচালনা কমিটির সভাপতি মো:কাসেম মোল্লা বলেন একমাত্র ভবনটি অত্যান্ত ঝুঁকিপূর্ণ হওয়ায় এবং স্কুল মাঠে ক্লাস নেয়ায় ইতোমধ্যে অনেক শিক্ষার্থী স্কুলে আসা বন্ধ করে দিয়েছে।

স্থানীয় সুএে আরো জানা জায় গত ২২ তারিখ নির্বাচনের সময় এই স্কুলে কোনো ব্যাঞ্চ না থাকায় কিছু ব্যাঞ্চ তৌরি করতে স্থানিয় মহিলা মেম্বর প্রার্থী মোসা:হাসিনা খান সেখানে ৫০০০ টাকাি দিয়েছেন চেয়ারম্যান প্রার্থী মো:হানিফ মিয়া ৮০০০ টাকা দিয়েছিলেন বলে জানা জায়।

Recommended For You

About the Author: HumayrA

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *