খুলনায় সুন্দরবন দিবস পালিত

৭১বিডি২৪, খুলনা:

সুন্দরবনকে রক্ষায় সরকারি বেসরকারি সম্মিলিতভাবে সর্বোচ্চ উদ্যোগ গ্রহণের আহ্বানের মধ্য দিয়ে পালিত হলো সুন্দরবন দিবস। বিশ্ব ভালবাসা দিবসে সুন্দরবনকে ভালবাসার আহ্বান জানানোর মধ্য দিয়ে সুন্দরবন সন্নিহিত জেলাসমূহে দিবসটি পালন করা হয়। রোববার নগরীর জাতিসংঘ শিশু পার্কে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।

খুলনার বিভাগীয় কমিশনার মো. আবদুস সামাদ এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় সম্মানিত অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন- কুয়েটের উপাচার্য প্রফেসর ড. মুহাম্মদ আলমগীর, খুলনা জেলা পরিষদের প্রশাসক শেখ হারুনুর রশীদ, খুলনার পুলিশ সুপার মো. হাবিবুর রহমান বিপিএম, পরিবেশ অধিদফতরের পরিচালক ড. মল্লিক আনোয়ার হোসেন, ইউএসএইডের ওয়াইল্ড টিমের বাঘ এ্যাকটিভিটির চিফ অব পার্টি গ্রে এফ. কলিন্স, ইউএসএইডের ক্রেল প্রকল্পের ডেপুটি চিফ অব পার্টি গিজ কেভিন কেম্প, জিআইজেড এর সুন্দরবন ম্যানেজমেন্ট প্রকল্পের টিম লিডার ওয়েমার ইডিওই।

সুন্দরবন একাডেমির উপদেষ্টা ও রূপান্তর-এর নির্বাহী পরিচালক রফিকুল ইসলাম খোকন এর সঞ্চালনায় এ অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তৃতা করেন বন বিভাগ খুলনা সার্কেলের বন সংরক্ষক জহির উদ্দিন আহমেদ।

ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন সুন্দরবন একাডেমির নির্বাহী পরিচালক অধ্যাপক আনোয়ারুল কাদির। অনুষ্ঠানে বক্তৃতা প্রতিযোগিতায় প্রথম পুরষ্কার লাভ করে সরকারি করোনেশন বালিকা বিদ্যালয়ের সাদিকা আফনিন ঋদ্ধি, দ্বিতীয় সেন্ট জোসেফস হাইস্কুলের আব্দুল্লাহ আল মামুন এবং তৃতীয় খুলনা জিলা স্কুলের আলিফ আল জামান। অনুষ্ঠানে ‘সুন্দরবন সংরক্ষণে আমার ভাবনা’ বিষয়ে বক্তৃতা ও চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতায় বিজয়ীদের মধ্যে পুরষ্কার বিতরণ করা হয়।

চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতায় হারম্যান মাইনর স্কুলের মো. সালমান সাদি প্রথম, একই স্কুলের সামিয়া তাসনিম অহনা দ্বিতীয় এবং খুলনা জিলা স্কুলের মাহির শারিয়ার বিন সাত্তার তৃতীয় স্থান লাভ করে। অংশগ্রহণকারী ২০টি বিদ্যালয়কেও শুভেচ্ছা পুরষ্কার প্রদান করা হয়।

বর্ণাঢ্য শোভযাত্রা, রূপান্তর থিয়েটারের পরিবেশনায় সুন্দরবনের পটগান, মুন্ডা শিল্পীদের পরিবেশনায় গীতিনৃত্য দিয়ে অনুষ্ঠানের শুরু হয়। পরে বেলুন উড়িয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে দিবসের কর্মসূচির উদ্বোধন করা হয়। জাতীয় পর্যায়ের পরিবেশ পদক পাওয়া সুন্দরবনপ্রেমিক আলহাজ্ব লিয়াকত আলীর নামে এবারের দিবসটি উৎসর্গ করা হয়।

অনুষ্ঠানে বক্তারা সুন্দরবনকে জাতীয় দিবস হিসেবে ঘোষণা দেবার আহ্বান জানিয়ে বলেন, সুন্দরবনের টিকে থাকার উপর দেশের দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের মানুষের বেঁচে থাকা, অর্থনৈতিক অগ্রগতি, সমৃদ্ধি বহুলাংশে নির্ভরশীল। এ বনকে ভালভাবে বাঁচিয়ে রাখতে সকলকে সম্মিলিত উদ্যোগ গ্রহণ করতে হবে।
খুলনায় কেন্দ্রীয় কর্মসূচি ছাড়াও সাতক্ষীরা, বাগেরহাট, পিরোজপুর, বরগুনাসহ বিভিন্ন উপজেলায় সুন্দরবন দিবসের নানা কর্মসূচি পালিত হয়।

Recommended For You

About the Author: HumayrA

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *