এক-এগারোর কুশীলবদের মুখোশ উন্মোচিত হবে : সেতুমন্ত্রী

(৭১বিডি২৪)অনলাইন ডেস্ক:

সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, ‘ওয়ান-ইলেভেনের সময় কী হয়েছিল, কারা এর সঙ্গে জড়িত, কারা মঞ্চের কুশীলব, আর কারা নেপথ্যের কুশীলব তা নিয়ে একদিন গবেষণা হবে এবং সবার মুখোশ উন্মোচিত হবে।’

আজ মঙ্গলবার রাজধানীর শাহবাগে ‘আমরা সূর্যমুখী’ আয়োজিত বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে এক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর এ সদস্য এসব কথা বলেন বলে বার্তা সংস্থা বাসসের এক প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়।

এ সময় মন্ত্রী আরো বলেন, ‘রাজনীতিবিদদের মধ্যে ন্যূনতম বোঝাপড়া থাকলে কোনো অবাঞ্ছিত বা অশুভ শক্তি গণতন্ত্রের ওপর আঘাত হানতে পারবে না।’

বিশিষ্ট আইনজীবী বার কাউন্সিলের সহসভাপতি আবদুল বাসেত মজুমদারের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় আরো বক্তব্য দেন সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব সৈয়দ হাসান ইমাম, জাতীয় প্রেসক্লাবের সভাপতি শফিকুর রহমান, সংসদ সদস্য বেগম আক্তার জাহান ও গোলাম ফারুক প্রিন্স।

ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘ওয়ান-ইলেভেনের কুশীলবদের উদ্দেশ্য ছিল বিরাজনীতিকরণ। এই বিরাজনীতিকরণ প্রক্রিয়ায় সামরিক মাঝারি শ্রেণির গোয়েন্দা কর্মকর্তাদের সঙ্গে অনেক বড় বড় রাজনৈতিক নেতাকে ঘণ্টার পর ঘণ্টা বৈঠক করতে দেখা গেছে। এসব রাজনীতিবিদ যদি ভুল স্বীকার করে অনুতপ্ত হন, তাহলে অনেক অশুভ ও অবাঞ্ছিত শক্তি ঠেকানো সম্ভব।’

‘যে যতই স্বপ্ন দেখুক, এ দেশে আর ওয়ান-ইলেভেনের পুনরাবৃত্তি ঘটবে না। কোনো অগণতান্ত্রিক শক্তির আর ক্ষমতায় আসার সম্ভাবনা নেই।’

সেতুমন্ত্রী বলেন, বিএনপি নেত্রী মুক্তিযুদ্ধে মীমাংসিত বিষয় শহীদের সংখ্যা নিয়ে প্রশ্ন তোলেন, বিএনপি নেতারা মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস অস্বীকার করে ইতিহাস বিকৃত করছেন। দেশের তরুণ প্রজন্ম যেদিন মুক্তিযুদ্ধের সঠিক ইতিহাস জানবে সেদিন তাঁদের ইতিহাসের কাঠগড়ায় দাঁড়াতে হবে।’

ওবায়দুল কাদের আরো বলেন, ‘১৭৫৭ সালে পলাশীতে স্বাধীনতার সূর্য অস্তমিত হওয়ার পর অনেক রক্ত ঝরেছে, অনেক আন্দোলন-সংগ্রাম হয়েছে। কিন্তু সব আন্দোলন-সংগ্রাম ব্যর্থ হয়েছে, জাতিকে স্বাধীনতার স্বাদ দিতে পারেনি। অবশেষে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বাঙালি জাতিকে স্বাধীনতা এনে দিয়েছেন।’

Recommended For You

About the Author: HumayrA

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *