ব্রেকিং নিউজ
গলাচিপায় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা’র ৭৬তম জন্মদিন উদযাপিত ঝালকাঠি জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান এ্যাড খান সাইফুল্লাহ পনির বামনায় আ,লীগের ত্রিবার্ষিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত নলছিটিতে এক বৃদ্ধের আত্মহত্যা স্ত্রীকে খুন করে খাটের নীচে কাঁথায় প্যাঁচিয়ে রাখলেন স্বামী তালতলীতে ইভটিজিংয়ের প্রতিবাদ করায় (৬) জনকে আসামী করে মামলা বামনায় দীর্ঘ ১১ বছর পর অনুষ্ঠিত হচ্ছে উপজেলা আ,লীগ সম্মেলন! চলছে নানা আয়োজন বামনা মহিলা ডিগ্রী কলেজের গভর্নিং বডির বিরুদ্ধে মিথ্যা অভিযোগে সভাপতির সংবাদ সম্মেলন ঝালকাঠিতে নানা আয়োজনে ইয়াস’র ২য় প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালিত নলছিটিতে গলায় ফাঁস দিয়ে যুবকের আত্মহত্যা
শুক্রবার, ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১২:৩৩ পূর্বাহ্ন

একাত্তরের তিন শহীদ হত্যাকারীর বিচার দাবিতে ঝালকাঠিতে সংবাদ সম্মেলন

আমির হোসেন, ঝালকাঠি প্রতিনিধি / ৫৫ ভোট :
প্রকাশ : মঙ্গলবার, ২৬ এপ্রিল, ২০২২
সংবাদ সম্মেলন

ঝালকাঠির কাঠালিয়ায় এক মুক্তিযোদ্ধার পৈত্রিক সম্পত্তি উদ্ধার একাত্তরের তিন শহীদদের হত্যাকারীর বিচারে দাবিতে প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা করে সংবাদ সম্মেলন করছেন বীর মুক্তিযোদ্ধা মোঃ গিয়াসউদ্দিন বাচ্চু সিকদার।

আজ ২৬ এপ্রিল মঙ্গলবার দুপুর ১২টায় উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্সের সভাকক্ষেএ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। সম্মেলনে স্থানীয় প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়ার সাংবাদিকরা অংশ নেন।

আরও পড়ুন- ঝালকাঠিতে ১৮৪ পরিবার পেল স্বপনের ঘর

সংবাদ সম্মেলনেলিখিত বক্তব্যে বীর মুক্তিযোদ্ধা গিয়াস উদ্দিন বাচ্চু জানান, কাঠালিয়া সদরে তার পৈত্রিক সূত্রে প্রাপ্ত ২৩২ নং খতিয়ানের ১৮৬২, ১৮৬৩ নং দাগের ৩.৬৬ শতাংশ জমি বিগত ৫০ বছর ধরে একই উপজেলার আনইলবুনিয়া গ্রামের আঃ রাজ্জাক মৃধা ওরফে শাজাহান মৌলভী জাল দলিল তৈরি করে জবর দখল করে আসছেন। ১৯৭১ সনে আঃ রাজ্জাক মৃধা, শ্রী কেশব চন্দ্র বল, শ্রী নারায়ন চন্দ্র ও শ্রী উপেন চন্দ্রকে হত্যার পিছনে হাত রয়েছে এবং মদদ দাতা হিসেবে কাজ করেছেন। দীর্ঘ দিনেও এই তিন শহীদদের হত্যাকারীর বিচার না হওয়ায় তিনি তাদের বিচারের দাবি এবং জমি উদ্ধারের জন্য প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা করছেন। একই সাথে তিনি আইন শৃংখলা রক্ষাকারী বাহিনীর দৃষ্টি আকর্ষন করছেন। বীর মুক্তিযোদ্ধা গিয়াস উদ্দিন বাচ্চু সিকদার কাঠালিয়া উপজেলা সদরের পনু সিকদারের পুত্র।

গিয়াস উদ্দীন সিকদার আরো জানান, ডিসেম্বর ২০২১ সনে জমাজমির বিষয়টি নিয়ে স্থানিয় ইউনিয়ন পরিষদের শালিশ মিমাংশার জন্য বৈঠক হলে বিজ্ঞবিচারকদের সিদ্ধান্ত আমি মেনে নিলেও আব্দুল রাজ্জাক মৃধার ভাগিনি ইউপি সদস্য সাবিনা ইয়াসমিনের অসৎহস্তক্ষেপে উক্ত মিমাংশা বেস্তে যায়। এরপর থেকে এ পক্ষটি মামলা দিয়ে আমাকে বিভিন্ন ভাবে হয়রানী করে আসছে। বিভিন্ন সময় কূ-রুচিপূর্ণ মন্তব্য করে আমার মান সম্মান ক্ষুন্ন করে আসছে। আমি এ হয়রানী থেকে পরিত্রান পাওয়ার জন্য আইনমন্ত্রী, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী ও ভূমিমন্ত্রীর দৃষ্টি আকর্ষন করছি।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

আরো সংবাদ...

নিউজ বিভাগ..