July 24, 2024, 3:54 am
শিরোনাম :
বরগুনায় ভুমি জরিপে অনিয়ম ও দূর্নীতি বন্ধের দাবীতে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ মিছিল পাথরঘাটায় কনিষ্ঠ উপজেলা চেয়ারম্যান নির্বাচিত হলেন এনামুল হোসেইন “পুরাতন নয়, চাই নতুন নেতৃত্ব ! এনামুল আমাদের আশা- আকাঙ্ক্ষার প্রতীক”  গলাচিপায় সিপিপি স্বেচ্ছাসেবকদের দিনব্যাপী দক্ষতা উন্নয়ন কর্মশালা অনুষ্ঠিত গলাচিপায় দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা বিষয়ে দক্ষতা উন্নয়ন প্রশিক্ষণ পাথরঘাটায় উপজেলা নির্বাচনে এমপি কন্যার ক্ষমতা অপব্যবহারের প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন গলাচিপায় টমটম উল্টে জিহাদ নামের কিশোরের মৃত্যু, আহত ২ পাথরঘাটায় চেয়ারম্যান প্রার্থী এনামুলের ওপর অতর্কিত হামলা ঘূর্ণিঝড় রেমালে গলাচিপায় প্রায় ১৫০ কোটি টাকার ক্ষয়ক্ষতি রাঙ্গাবালীতে মোটরসাইকেল প্রতীকের নির্বাচনী পথসভা

উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তার বদলিতে ভাতাভোগী ও কর্মচারিদের মাঝে স্বস্তি

তরিকুল ইসলাম রতন, স্টাফ রিপোর্টার;

বরগুনার বেতাগী উপজেলার মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা শাহিনুর বেগমকে ষ্ট্যান্ড রিলিজ (তৎাক্ষণিকভাবে অবমুক্ত) করা হয়েছে।
এতে স্থানীয় উপকার ভোগী ও কর্মচারিদের মাঝে স্বস্তি ফিরে এসেছে।

উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা শাহিনুর বেগম (মুলপদ: প্রোগ্রাম অফিসার) কে বরগুনার বেতাগী থেকে উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা কার্যালয় থানচি বান্দরবন বদলী করে কর্তৃপক্ষ।

গত বুধবার (২৫ মে) দুপুরে তার বিষয়ে সর্বস্তরে জানা জানি হয়।

গত ২৩ মে বাংলদেশ সচিবালয়ের মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয় (মবিঅ-১ শাখা) ৩২,০০,০০০০,০২৮,১২,০০৭,১৯ (৫) ১২৯ নং স্মারকে রাষ্ট্রপতির আদেশ ক্রমে সিনিয়র সহকারি সচিব ফৌজিয়া সিদ্দিকা স্বাক্ষরিত এক প্রজ্ঞাপন জারি করেন। জনস্বার্থে জারিকৃত এ আদেশ অবিলম্ভে কার্যকর করার জন্য নির্দেশ দেওয়া হয়েছে এবং এতে বলা হয়েছে বদলিকৃত কর্মকর্তা আগামী ৩০ মে‘২০২২ তারিখের মধ্যে বর্তমান কর্মস্থল হতে অবমুক্ত হয়ে বদলিকৃত কর্মস্থলে যোগদান করবেন। অন্যথায় ৩০ মে‘২০২২ তারিখ অপরাহ্নে বর্তমান কর্মস্থল হতে তাৎক্ষণিক অবমুক্ত বলে গণ্য হবেন। তার কর্মকান্ড সন্তোষ জণক নয় বলে তাকে শাস্তিযোগ্য বদলী করা হয় এমনটাই জানিয়েছেন সংশ্লিস্ট কর্তৃপক্ষ।

অফিস সুত্রে জানা যায় -বেতাগী উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা শাহিনুর বেগম গত ২০১৮ সালের ১১ নভেম্বর মাসে বেতাগী উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা হিসেবে যোগদান করেন। সে থেকে তিনি চাকরি করে আসছেন।

অফিস সুত্রে আরও জানা যায় শাহিনুর বেগমের বিরুদ্ধে একাদিক অভিযোগ রয়েছে । তিনি সরকারি নীতিমালা লঙ্ঘন করে বিভিন্ন ট্রেডের প্রশিক্ষণার্থী ও মাতৃত্বকীলীন দরিদ্র মায়েদের ভাতা প্রদানে নানা অনিয়ম করায় ভাতা বঞ্চিত একাধিক মহিলা ক্ষিপ্ত হয়ে একাধিকবার তার কার্যালয় তাঁকে অবরুদ্ধ করে।

এছাড়াও তার বিরুদ্ধে কর্মস্থলে অনুপস্থিতি, ক্ষমতার অপব্যবহার, দায়িত্বে অবহেলাসহ আর্থিক নানা অনিয়ম ও দুর্নীতির অভিযোগে গত ২০১৬ সালে তাকে কাউখালী উপজেলায় বদলী ও তার বিরুদ্ধে বিভাগীয় মামলা হয়। কিন্ত পুনরায় একই কর্মস্থলে দেওয়ায় স্থানীয়দের মাঝে চরম অসন্তোষ ও ক্ষোভ বিরাজ করে আসছিলো। এ নিয়ে একাধিক জাতীয় ও আঞ্চলিক গণমাধ্যমে সংবাদ প্রকাশিত হয়।

পরে ঢাকা মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তর থেকে একাধিকবার তদন্ত হয়।

আরও পড়ুন- বরগুনা প্রায় অর্ধ শতাধিক অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ

স্থানীয়দের অভিযোগ সুত্রে জানা যায়- বেতাগী উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা শাহিনুর বেগমের দুর্ণীতির কারণে এ উপজেলার প্রায় দেড় লাখ জনসংখ্যা আজ অধ্যূষিত / জিম্মি হয়ে পরেছে।

বেতাগী উপজেলা দুর্নীতি প্রতিরোধ কমিটির সাধারণ সম্পাদক মো: মহসীন খান বলেন, এতোদিন তাঁর দুর্নীতি ও অনিয়ম মানুষ সহ্য করে আসছিল। বদলী হওয়ায় এখন স্থানীয়দের মাঝে স্বস্তি ফিরে এসেছে।

এ বিষয় বেতাগী উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা শাহিনুর বেগম বলেন, যেখানে আল্লাহ রিজিক লিখেছেন সেখানেই যাচ্ছি। এ নিয়ে আপসোস করার কিছুই নেই।

এবিষয়ে বরগুনা জেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা মেহেরুন নাহার মুন্নী জানান, শাহিনুর বেগমের বিরুদ্ধে নানা অনিয়মের অভিযোগ ছিলো এবং তাকে অনেকবার সতর্ক করা হয়েছিলো।
কিন্তু সে তা শুনেননি।

তিনি আরও জানান-তার এই স্টান্ড রিলিজে বেতাগী উপজেলার ভাতাভোগী ও অফিস স্টাফদের মাঝে অনেকটা স্বস্তি ফিরি এসেছে বলে তিনি জানান ।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


ফেসবুকে আমরা