আপন জুয়েলার্সের ৩ মালিকের জামিন নিয়ে রুল

৭১বিডি২৪ডটকম ॥ ঢাকা:


আপন জুয়েলার্সের ৩ মালিকের জামিন নিয়ে রুল


আপন জুয়েলার্সের তিন মালিক দিলদার আহমেদ, গুলজার আহমেদ ও আজাদ আহমেদকে কেন জামিন দেয়া হবে না, তা জানতে চেয়ে রুলি জারি করেছেন আদালত। বুধবার বিচারপতি এম ইনায়েতুর রহিম ও সহিদুল করিমের হাইকোর্ট বেঞ্চ এই রুল জারি করেন।

আগামী দুই সপ্তাহের মধ্যে রুলের জবাব দিতে বলা হয়েছে বলে জানিয়েছেন আপন জুয়েলার্সের তিন মালিকের আইনজীবী এম আমিন উদ্দিন।

জানা গেছে, অর্থপাচারের তিন মামলায় গ্রেফতারি পরোয়ানা জারির পর গত ২৪ অক্টোবর আদালতে আত্মসমর্পণ করেন আপন জুয়েলার্সের তিন মালিক তিন সহোদর। এর পর থেকে কারাগারে আছেন তারা।

আদালত সূত্র জানায়, কাগজপত্র দেখাতে না পারায় অর্থপাচারের অভিযোগে ১২ আগস্ট তাদের বিরুদ্ধে পাঁচটি মামলা করা হয়।

এর মধ্যে দিলদারের বিরুদ্ধে তিনটি ও তার অপর দুই ভাইয়ের বিরুদ্ধে একটি মামলা হয়। এসব মামলায় চলতি বছরের ২২ ও ২৩ অক্টোবর ওই তিন আসামির বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেন আদালত।

উল্লেখ্য, চলতি বছরের ৬ মে আপন জুয়েলার্সের মালিক দিলদার আহমেদের ছেলে সাফাতের বিরুদ্ধে দুই বিশ্ববিদ্যালয়ছাত্রী ধর্ষণের অভিযোগে মামলা হয়।

ঘটনাটি সারা দেশে ব্যাপক সাড়া ফেলে। এরই জেরে সাফাতের পরিবারের মালিকানাধীন আপন জুয়েলার্সের সোনা চোরাচালানের বিষয়ে তদন্তে নামে শুল্ক গোয়েন্দা অধিদফতর।

গত ৪ জুন শুল্ক বিভাগ আপন জুয়েলার্সের ডিএনসিসি মার্কেট, উত্তরা, মৌচাক, সীমান্ত স্কয়ার ও সুবাস্তু শাখা থেকে প্রায় ১৫ মণ স্বর্ণ ও ৪২৭ গ্রাম হীরা জব্দ করে বাংলাদেশ ব্যাংকে জমা দেয়।

জব্দকৃত এসব স্বর্ণালংকারের বৈধ কাগজপত্র দেখাতে না পারায় অর্থ পাচারের অভিযোগে ১২ আগস্ট আপন জুয়েলার্সের তিন মালিকের বিরুদ্ধে ওই পাঁচটি মামলা হয়।

অভিযোগে বলা হয়, চোরাচালানের মাধ্যমে শুল্ক ফাঁকি দিয়ে স্বর্ণালংকার এনে এর অর্থ অবৈধভাবে বিদেশে পাঠানো হয়েছে।

পাশাপাশি অবৈধভাবে অর্জিত সম্পদের সঠিক পরিমাণ তারা আয়কর বিবরণীতে উল্লেখ করেননি।
এর আগে ৮ জুন আপন জুয়েলার্সের ওই তিন মালিকের বিরুদ্ধে শুল্ক ফাঁকির পাঁচটি মামলা করা হয়।

Recommended For You

About the Author: HumayrA

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *