April 13, 2024, 12:56 pm
শিরোনাম :

অসহায় মাহামুদাকে সেলাই মেশিন উপহার দিলেন ডিসি

তরিকুল ইসলাম রতন, বরগুনা প্রতিনিধি
অসহায় মাহামুদাকে সেলাই মেশিন উপহার দিলেন ডিসি

বরগুনা সদর উপজেলায় অসহায় ও স্বামী পরিত্যাক্তা মাহমুদা আক্তারকে সেলাই মেশিন উপহার দিলেন জেলা প্রশাসক হাবিবুর রহমান।

জানা যায়- মাহমুদা আক্তার তার দুই সন্তান, বৃদ্ধ মা-বাবা ও প্রতিবন্ধী এক ভোনকে নিয়েই তার জীবন কাটছে অর্ধাহারে। অনেকটা নুন আনতে পান্তা ফুরানোর মতো। সেলাই কাজ করে জীবিকা নির্বাহ করবে এই আশা নিয়ে বরগুনা জেলা প্রশাসক হাবিবুর রহমান এর কাছে একটি লিখিত আবেদন করেন।

গত বৃহস্পতিবার (২১ এপ্রিল) দুপুরে অসহায় মাহমুদার হাতে এই সেলাই মেশিন তুলে দেন বরগুনা জেলা প্রশাসন। বরগুনা জেলা প্রশাসক হাবিবুর রহমান তাকে সেলাইয়ের কাজ শেখার শর্তে একটি সেলাই মেশিন দিবেন বলে আশ্বাস দেন।

পরে মাহমুদা আক্তার বরগুনার জেলা প্রশাসক হাবিবুর রহমান এর নির্দেশে যুব উন্নয়ন প্রশিক্ষণে অংশগ্রহণ করে সেলাই কাজ শেখেন এবং সেলাই প্রশিক্ষণ শেষে সার্টিফিকেট নিয়ে ফিরে আসেন জেলা প্রশাসক কার্যালয়। সেলাই কাজ করে মাহমুদা আক্তার যেন তার দুই সন্তান নিয়ে সুন্দরভাবে বাঁচতে পারে, তাকে যেন আর কষ্ট করে দিনাতিপাত করতে না হয় তারই সুব্যবস্থা হিসেবে বরগুনা জেলার জেলা প্রশাসক ও বিজ্ঞ জেলা ম্যাজিস্ট্রেট হাবিবুর রহমান তার হাতে তুলে দেন একটি সেলাই মেশিন। সেলাই মেশিন পেয়ে মাহমুদা ও তার দুই সন্তানের চোঁখে -মুখে যেন আনন্দের ফুলঝুড়ি।

আরও পড়ুন- আমতলীতে যৌতুক মামলার ওয়ারেন্টভুক্ত পলাতক আসামী গ্রেফতার

অসহায় ও স্বামী পরিত্যাক্তা মাহামুদা আক্তার সেলাই মেশিন পেয়ে বলেন, গত আড়াই মাস আগে আমি এক সাংবাদিক ভাইয়ের মাধ্যমে বরগুনা জেলা প্রশাসক হাবিবুর রহমান স্যারের কাছে একটি সেলাই মেশিন পাওয়ার জন্যে আবেদন করি। তার নির্দেশে আমি যুব উন্নয়ন প্রশিক্ষণে অংশগ্রহণ করে সেলাই কাজ প্রশিক্ষণ গ্রহণ করি। সেই প্রশিক্ষণের আলোকে আমাকে একটি সেলাই মেশিন উপহার দেওয়া হয়। এখন সেলাইয়ের কাজ করে আমার দুই সন্তান, বৃদ্ধ মা,বাবা ও প্রতিবন্ধী একটি বোনকে নিয়ে দু মুঠো আহার জোগাতে পারবো।

তিনি আরও বলেন, আমি ও আমার পরিবার চিরকৃতজ্ঞ বরগুনা জেলা প্রশাসক হাবিবুর রহমান স্যারের এই মানবিক কাজের প্রতি।

এবিষয়ে বরগুনা জেলা প্রশাসক হাবিবুর রহমান জানান, গত আড়াইমাস আগে সাংবাদিকের মাধ্যমে অসহায় ও স্বামী পরিত্যাক্তা মাহমুদা আমার কাছে একটি সেলাই মেশিনের জন্যে আবেদন করেন। সেই আবেদনের আলোকে তাকে স্বাবলম্ভী হওয়ার জন্যে একটি সেলাই মেশিন গত বৃহসপতিবার দুপুরে হস্তান্তর করা হয়।

তিনি আরও জানান, আমাদের প্রত্যেক সামর্থ্যবান মানুষের উচিৎ অসহায় লোকজনের পাশে দাঁড়ানো। তাঁদের সামান্য সহায়তায় একটি পরিবারের দুঃখ-কষ্ট লাঘব হতে পারে বলে তিনি জানান।

আরও পড়ুন- বরগুনায় অভিযান চালিয়ে সাড়ে ৫ লাখ টাকার অবৈধ জাল পুড়িয়ে ধ্বংস


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


ফেসবুকে আমরা